সাবেক বিচারপতির দুর্নীতির তদন্ত বন্ধে সুপ্রিম কোর্টের দেয়া চিঠির বিষয়ে রুল নিষ্পত্তি

November 14, 2017 at 10:57:51 PM |

সাবেক বিচারপতির বিষয়ে দুর্নীতি দমন কমিশন তদন্ত করতে পারবে এমন পর্যবেক্ষণ দিয়ে আপিল বিভাগের সাবেক বিচারপতি জয়নুল আবেদীনের দুর্নীতির তদন্ত বন্ধে সুপ্রিম কোর্টের দেয়া চিঠির বিষয়ে রুল নিষ্পত্তি করে দিয়েছে হাইকোর্ট। সেই সঙ্গে সাবেক ওই বিচারপতির বিরুদ্ধে দুদকের অনুসন্ধান চলবে বলেও জানিয়েছে আদালত।

আদালত বলেছে, একমাত্র রাষ্ট্রপতি তার দায়িত্বকালীন সময় ছাড়া কেউই আইনের উর্ধ্বে নয়।আজ বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি সহিদুল করিমের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় দেন। আসাদ রিয়েলের রিপোর্ট।

জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে ২০১০ সালে  আপিল বিভাগের সাবেক বিচারপতি জয়নুল আবেদীনের বিরুদ্ধে হিসাব চেয়ে নোটিশ পাঠায় দুর্নীতি দমন কমিশন। অনুসন্ধানের স্বার্থে চলতি বছরের ২ মার্চ সুপ্রিম কোর্টের কাছে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র চেয়ে চিঠি দেয় দুদক।

এর জবাবে ২৮ এপ্রিল আপিল বিভাগের অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার অরুণাভ চক্রবর্তী স্বাক্ষরিত একটি চিঠি দুদকে পাঠায় সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন।

২৮ মার্চ সুপ্রিম কোর্টের দেওয়া চিঠিটি হাইকোর্টের নজরে আনেন এক আইনজীবী। এরপর আদালত স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে ওই চিঠি কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন। রুলের শুনানি ও তিনজন অ্যামিকাস কিউরির বক্তব্য শুনে গত ৩১ অক্টোবর বিষয়টি রায়ের জন্য অপেক্ষমান রাখা হয়।

এর ধারাবাহিকতায় আজ সাতটি পর্যবেক্ষণ দিয়ে রুল নিষ্পত্তি করে দেন হাইকোর্ট। পর্যবেক্ষণে দুর্নীতি অনুসন্ধানে দুদকের দীর্ঘসূত্রতা নিয়ে অসন্তুষ্টি জানিয়েছেন আদালত। তবে এই আদেশে সন্তুোষ জানিয়েছেন সাবেক বিচারপতি জয়নুল আবেদীনের আইনজীবী।

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও মামলার অ্যামিকাস কিউরি জয়নুল আবেদীন মনে করেন এ রায়ের ফলে বিভ্রান্তি দূর হয়েছে।তদন্তের আগে কাউকে যাতে হয়রানি করা না হয়, সেটি খেয়াল রাখত্ওি দুদককে নির্দেশনা দিয়েছেন আদালত।