দেশবাংলা

মাঝ পদ্মায় স্পিডবোট ডুবি, তিন লাশ উদ্ধার

পদ্মায় স্পিডবোট ডুবি তিন লাশ উদ্ধার

কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া নৌরুটের মাঝ পদ্মায় ডাম্প ফেরির ধাক্কায় যাত্রীবাহী স্পিডবোট ডুবির ঘটনায় নিখোঁজ তিন যাত্রীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার সকাল ১১টার দিকে নৌ-পুলিশ ও শিবচর থানা পুলিশ পদ্মা নদীর বিভিন্ন স্থান থেকে তাদের মৃতদেহ উদ্ধার করে।

নিহত তিনযাত্রী হলেন, গোপালগঞ্জ জেলার মুকসুদপুর উপজেলার প্রশনপুর গ্রামের আব্দুর রহমান উকিলের ছেলে মেরাজুল ইসলাম রাজু (২৫), মিরাজুলের স্ত্রী সাদিয়া আক্তার লিমা (১৮), পটুয়াখালি জেলার বাউফল উপজেলার আমিরাবাদ গ্রামের রুবেল গাজির মেয়ে ফাতেমা আক্তার (৮)। এদের মধ্যে মিরাজুল ইসলাম রাজু সিরাজগঞ্জ জেলায় কারারক্ষী হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

নৌ-পুলিশ ও শিবচর থানা পুলিশ জানায়, রবিবার বিকালে শামীম মাদবরের মালিকানাধীন ২৪-

জন যাত্রী নিয়ে একটি স্পিডবোট শিমুলিয়া ঘাট থেকে কাঁঠালবাড়ি ঘাটের দিকে যাচ্ছিল। মাঝ নদীতে এসে চলন্ত স্পিডবোটের সাথে

একটি ডাম্প ফেরির ধাক্কা লাগলে  স্পিডবোট ডুবে যায়। সেখান থেকে নদীতে টহলরত সেনা কর্মকর্তারা ২১যাত্রীকে উদ্ধার করে।

তবে তিন যাত্রী নিখোঁজ থাকায় রাতে নৌ-পুলিশ ও শিবচর থানা পুলিশ নদীতে উদ্বার অভিযান অব্যাহত রাখে।

সোমবার সকালে পদ্মা নদীর বিভিন্ন স্থান থেকে ওই তিন জনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। শিবচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)

জাকির হোসেন মোল্লা জানান, ‘কাঁঠালবাড়ি-শিমুলিয়া নৌরুটে স্পিডবোট ডুবির ঘটনায় তিন যাত্রীর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

তাদের স্বজনদের কাছে মৃতদেহ হস্তান্তর করা হবে। যদি নিহতের স্বজনরা আইনগত ব্যবস্থা নিতে চায়, তাহলে তাদের পাশে থাকবো।’

বাংলাটিভি/এসএম/এবি

সংশ্লিষ্ট খবর

Close

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker