নির্বাচনবাংলাদেশ

আসন্ন নির্বাচনে থাকছে না জাতিসংঘের কোন পর্যবেক্ষক

আসন্ন একাদশ  জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতিসংঘ বাংলাদেশে  পর্যবেক্ষণ করছে না,পাঠাচ্ছে না পর্যবেক্ষক দলও । জাতিসংঘ মহাসচিবের মুখপাত্র স্টিফেন ডুজারিক গত সোমবার রাতে নিউ ইয়র্কে এ তথ্য জানান। এর আগে ইউরোপের ২৮টি দেশের জোট ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) ও ইউরোপীয় পার্লামেন্টও পর্যবেক্ষক না পাঠানোর বিষয়টি স্পষ্ট করেছে। যুক্তরাষ্ট্র থেকে পর্যবেক্ষকদল আসার কথা থাকলেও বেশির ভাগ দেশ স্থানীয়ভাবে তাদের দূতাবাস বা বিভিন্ন সংস্থার মাধ্যমে বাংলাদেশের নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করবে। এরই মধ্যে তার প্রস্তুতিও শুরু হয়েছে।

তবে বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতে জাতিসংঘ ইউএনডিপি/ইউএনউইমেনের মাধ্যমে বাংলাদেশের সংসদ নির্বাচন প্রকল্পে কারিগরি সহায়তা দিচ্ছে। ওই প্রকল্পে নির্বাচন কমিশনকে জনগণের কাছে পৌঁছানো, নারী ও প্রতিনিধিত্ব নেই এমন গোষ্ঠীগুলোকে নির্বাচনপ্রক্রিয়ায় আনা, কমিশনের প্রশিক্ষণ সক্ষমতা জোরদার এবং নির্বাচনী সহিংসতা প্রতিরোধ ও প্রশমনে কৌশল গ্রহণকে গুরুত্ব দেওয়া হয়।

জাতিসংঘ মহাসচিবের মুখপাত্র বলেন, ‘নীতিগতভাবে আমরা বিশ্বাস করি, কোনো ধরনের দমন-পীড়ন ছাড়া ইতিবাচক পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়া উচিত।’ ইইউয়ের সদস্য নয়, ঢাকায় এমন একটি দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত এ সপ্তাহে বলেছেন, তাঁর দেশ নির্বাচন পর্যবেক্ষণের জন্য স্থানীয় পর্যবেক্ষকদের অর্থায়ন করছে; কিন্তু নিজেরা কোনো পর্যবেক্ষক পাঠাচ্ছে না।

এদিকে ঢাকায় যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসের রাজনৈতিক কর্মকর্তা উইলিয়াম মোয়েলার সম্পতি রয়টার্সকে বলেছেন, বাংলাদেশের আসন্ন জাতীয় নির্বাচন পর্যবেক্ষণে ১২টি পর্যবেক্ষকদল পাঠাবে যুক্তরাষ্ট্র। প্রতিটি দলে দুজন করে পর্যবেক্ষক থাকবেন। এ ছাড়া যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা (ইউএসএআইডি), যুক্তরাজ্যের আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা (ডিএফআইডি) ও সুইস সরকার প্রায় ১৫ হাজার বাংলাদেশিকে নির্বাচন পর্যবেক্ষণে অর্থায়ন করবে

বাংলাটিভি/এমআরকে

সংশ্লিষ্ট খবর

Close