অন্যান্যঅর্থনীতিবাংলাদেশ

জিডিপি ও মাথাপিছু আয় বেড়েছে: অর্থমন্ত্রী

২০১৮-১৯ অর্থবছরে মোট দেশজ উৎপাদনের (জিডিপি) পরিমাণ বেড়েছে। একই সাথে বেড়েছে দেশের মানুষের মাথাপিছু আয়। বিনিয়োগের পরিমাণও বেড়েছে। তবে কমে গিয়েছে কৃষি ও সেবা খাতের প্রবৃদ্ধির পরিমাণ।

চলতি অর্থবছর শেষে জিডিপির প্রবৃদ্ধি ছাড়াবে ৮ দশমিক ১৩ শতাংশে। তাছাড়া,চলতি অর্থবছরে মাথাপিছু আয় বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৯০৯ ডলার।যেখানে গত অর্থবছরে ছিল ৭ দশমিক ৮৬ শতাংশ।

২০১৭-১৮ অর্থবছরে মাথাপিছু আয় ছিল ১ হাজার ৭৫১ মার্কিন ডলার। চলতি অর্থবছরে তা বেড়ে হয়েছে ১ হাজার ৯০৯ মার্কিন ডলার।অন্যদিকে গত অর্থবছরে বিনিয়োগ ছিল ৩১ দশমিক ১৩ শতাংশ।

চলতি অর্থবছরে সেটা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩১ দশমিক ৫৭ শতাংশে। এর মধ্যে সরকারি খাতের বিনিয়োগ ৮ দশমিক ১৭ শতাংশ এবং বেসরকারি খাতের বিনিয়োগ ২৩ দশমিক ৪০ শতাংশ।

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল মঙ্গলবার ১৯ মার্চ জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদ (এনইসি) সভা শেষে এসব তথ্য জানান ।

অর্থমন্ত্রী বলেন, অর্থনীতির প্রত্যেকটা খাতেই আমাদের প্রবৃদ্ধি ভালো। আমাদের রফতানি এবং বিনিয়োগ বেড়েছে। ম্যানুফ্যাকচারিং খাত বেড়েছে। মূল যেসব খাত, সবগুলোই আমাদের বেড়েছে। সেজন্য জিডিপির প্রবৃদ্ধি ভালো।’

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন ,কৃষি ও সেবা খাতে প্রবৃদ্ধি কমলেও কয়েকটি খাতে তা বেড়েছে। এ বিষয়ে মুস্তফা কামাল জানান, কৃষির প্রবৃদ্ধি ২০১৭-১৮ অর্থবছরে ছিল ১১ দশমিক ০২ শতাংশ। ২০১৮-১৯ অর্থবছরে তা কমে ৯ দশমিক ১৩ শতাংশ। গত অর্থবছরে ইন্ডাস্ট্রিতে (শিল্প) প্রবৃদ্ধি ছিল ১৭ দশমিক ১৩ শতাংশ।

 এ অর্থবছরে তা ১৭ দশমিক ৬১ শতাংশ। গত অর্থবছরে ম্যানুফ্যাকচারিং ছিল ১৮ দশমিক ২৩ শতাংশ। এ অর্থবছরে তা ১৯ দশমিক ২৮ শতাংশ। সেবা (সার্ভিস) খাতে প্রবৃদ্ধি ছিল গত অর্থবছরে ১২ দশমিক ৮০ শতাংশ। এ অর্থবছর তা কমে ১২ দশমিক ১০ শতাংশ।

বাংলাটিভি/ফাতেমা

 

 

 

সংশ্লিষ্ট খবর

Close

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker