আইন-বিচারবাংলাদেশ

দণ্ডিতরা নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন- হাইকোর্টের এ আদেশ স্থগিত

বিচারিক আদালতের দেওয়া সাজা কিংবা দণ্ড স্থগিত হলে সাজাপ্রাপ্ত ব্যক্তিরা নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন বলে হাইকোর্টের  দেওয়া আদেশ স্থগিত করেছেন চেম্বার জজ আদালত।

শনিবার সকালে, রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনের প্রেক্ষিতে চেম্বার বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর হাইকোর্টের দেয়া আদেশটি স্থগিত করেন।শনিবার আদালত বন্ধ থাকলেও বিশেষ ব্যবস্থায় রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনের প্রেক্ষিতে এর ওপর  শুনানি শুরু হয় শুনানিতে রাষ্ট্রপক্ষে অংশ নেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

হাইকোর্টের একক বেঞ্চ যে আদেশ দেন তা স্থগিত চেয়ে রাষ্ট্রপক্ষের করা আবেদনের শুনানি হয় চেম্বার আদালতে। শুনানি শেষে হাইকোর্টের এই আদেশ একদিনের জন্য স্থগিত করে আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে পাঠিয়েছেন চেম্বার আদালত।

আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে পাঠিয়ে আদেশে তিনি বলেন, যেহেতু এ বিষয়ে এর আগে আমরা একটা সিদ্ধান্ত দিয়েছি, তাই এটা স্থগিত করে ফুল কোর্টে পাঠিয়ে দিচ্ছি।’

রবিবার সকালে, প্রধান বিভারপতির নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে এ বিষয়ে শুনানি হবে।

আদেশের পরে অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, আজকের আদেশের ফলে সাবিরা সুলতানার নির্বাচনে অংশ নেওয়ার সুযোগ নেই। যদি না আগামীকাল আপিল বিভাগ অন্য কোনো আদেশ না দেন।

বহির্ভূত সম্পদ অর্জন ও তথ্য গোপনের দায়ে যশোর-২ আসনের বিএনপি প্রার্থী সাবেরা সুলতানার নামে চলতি বছরের ১২ই জুলাই দু’টি ধারায় তিন বছর করে মোট ছয় বছরের সাজা দেন ঢাকার বিশেষ জন আদালত।

পরে, সাবেরা সুলতানা ওই সাজা ও দণ্ড স্থগিতের আবেদন করলে বিচারপতি মো. রইস উদ্দিনের একক বেঞ্চ তা মঞ্জুর করেন। ফলে তার নির্বাচন করতে আর কোন বাধা থাকলো না বলে জানান সাবেরা খাতুনের আইনজীবীরা।

কিন্তু এর আগে, দুই বছরের বেশি দণ্ড বা সাজা হলে কোন ব্যক্তি আপিল করেও নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেননা বলে রায় দেন হাইকোর্টের একটি দ্বৈত বেঞ্চ।

গেল ২৭শে নভেম্বর হাইকোর্টের অন্য একটি বেঞ্চ বিএনপির পাঁচ নেতার দণ্ড স্থগিতের আবেদন খারিজ করে দিয়ে বলেন, ‘দণ্ড স্থগিত অবস্থায় অথবা আপিল চলমান থাকলেও দণ্ডিত ব্যক্তিরা প্রার্থী হতে পারবেন না। আর ২৯শে নভেম্বর অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম জানান, ‘সংবিধান অনুযায়ী ২ বছরের বেশি সাজাপ্রাপ্ত ব্যক্তি নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না।’

নির্বাচনে অংশ নেয়ার বিষয়ে দু’টি বেঞ্চের আদেশ দ্বিমুখী হওয়ায় বিষয়টি নিষ্পত্তির জন্য আপিল করে রাষ্ট্রপক্ষ।

অন্য দণ্ডিতদের নির্বাচনে অংশ নেওয়ার বিষয়ে অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, শুধু সাবিরাই নয়, এটা সংবিধানের বিধান। সব দণ্ডিতই নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না। যে আদালতই দন্ড দেন না কেন।

বাংলাটিভি/এমআরকে/এবি

সংশ্লিষ্ট খবর

Close

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker