আন্তর্জাতিকযুক্তরাজ্য

‘বোমা সদৃশ বস্তু’ পাঠানোর ঘটনায় একজন গ্রেফতার যুক্তরাষ্ট্রে

||বাংলা টিভি অনলাইন||

মার্কিন রাজনৈতিক ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের ঠিকানায় ‘বোমা সদৃশ বস্তু’ পার্সেল করে পাঠানোর ঘটনায় সিজার সায়োক নামের এক অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শনিবার সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে একথা জানানো হয়।

মার্কিন কর্তৃপক্ষের বরাতে বলা হয়, ৫৬ বছর বয়স্ক সিজারকে ফ্লোরিডা থেকে আটক করা হয়। তার বিরুদ্ধে ৫টি অভিযোগ আনা হয়েছে। সিজারের সর্বোচ্চ ৪৮ বছর সাজা হতে পারে।

বিভিন্ন গণমাধ্যম জানায়, সিজার সায়োককে ফ্লোরিডার প্ল্যানটেশন শহরে একটি গাড়ি মেরামতের দোকান থেকে গ্রেফতার করা হয়। ফেডারেল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (এফবিআই) ডিরেক্টর ক্রিস্টোফার ওয়েরি বলেন, পার্সেলের মধ্য থেকে ফিঙ্গার প্রিন্ট উদ্ধার করে সিজারকে শনাক্ত করা হয়েছে।

এর আগে ‘বোমা পাঠানো’র রহস্য উদঘাটন করতে মিয়ামির ওপা লোকার পোস্ট অফিসে তল্লাশি চালায় এফবিআই।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সমালোচনাকারী হিসেবে পরিচিত, ৭ জন ব্যক্তি ও জনপ্রিয় মার্কিন টিভি চ্যানেল সিএনএন-এর ঠিকানায় ১৪ টি ‘বিস্ফোরক প্যাকেজ’ পার্সেল করে পাঠানো হয়। এ তালিকায় রয়েছেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা, সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন, সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটন, হলিউড অভিনেতা রবার্ট ডি নিরোর মতো ব্যক্তিত্বরা।

পুলিশ জানিয়েছিলো,‘বোমাগুলো’ পেশাদার কারো হাতে বানানো নয়। অতি সরল প্রক্রিয়ায় তৈরি এসব ‘বিস্ফোরক’ কতটা ক্ষতিকর তা ল্যাবে পরীক্ষার পর জানা যাবে। ভার্জিনিয়ার এফবিআই ল্যাবে সেসব পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। তবে সেসব বোমা মার্কিন জনমনে আতঙ্ক তৈরি করে।

ট্রাম্প বলেছেন, সাধারণ মানুষ ওসব ব্যক্তি ও গণমাধ্যমের ওপর ক্ষিপ্ত বলেই এমন করেছে। তবে যুক্তরাষ্ট্রে এধরনের কাজ গ্রহণযোগ্য নয় বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

মার্কিন অ্যাটর্নি জেনারেল জেফ সেশনস এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, আমরা আইন বিরোধী এরকম রাজনৈতিক সহিংসতা সহ্য করবো না। অন্ধ রাজনৈতিক বিশ্বাসের জন্য এটা একটা শিক্ষা হয়ে থাকবে।

অপরাধী সিজার ফ্লোরিডার বাসিন্দা ও রিপাবলিকান পার্টির নিবন্ধিত সদস্য। ২০০২ সালে বোমা তৈরির হুমকি হিসেবে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। যদিও ২৯ বয়সেই চুরির দায়ে প্রথম সিজারকে গ্রেফতার করা হয়। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন প্রতারণারও অভিযোগ রয়েছে।

বাংলাটিভি/এসএম/এবি

সংশ্লিষ্ট খবর

Close