আন্তর্জাতিকএশিয়া

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে বাংলাদেশ প্রস্তুত না -অং সান সু চি

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে বাংলাদেশ প্রস্তুত না থাকায়, চুক্তি অনুযায়ী নির্ধারিত সময়ে তাদের ফিরিয়ে নেয়া শুরু করা যায়নি বলে অভিযোগ করেছেন মিয়ামারের স্টেট কাউন্সিলর অং সান সু চি। ভিয়েতনামের হ্যানয়ে, আসিয়ান নিয়ে বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামের সম্মেলনে আজ এ অভিযোগ করেন তিনি। এদিকে, রয়টার্সকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব শহিদুল হক বলেছেন,পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের স্থায়ীভাবে আশ্রয় দেয়ার কোনো পরিকল্পনা বাংলাদেশের নেই।

বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে গত বছরের ২৩ নভেম্বর বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের মধ্যে চুক্তি হয়। চুক্তি অনুযায়ী ২৩ জানুয়ারি প্রথম দফায় রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরুর কথা ছিল। তবে মিয়ানমারের টালবাহানায় পেছাতে থাকে এ প্রক্রিয়া। যার ফলে এখন পর্যন্ত একজন রোহিঙ্গাকেও বাংলাদেশ থেকে ফেরত নেয়নি মিয়ানমার।

তবে বিষয়টি নিয়ে, উল্টো বাংলাদেশের ওপরই দায় চাপালেন মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সিলর অং সান সু চি।  বৃহস্পতিবার ভিয়েতনামের রাজধানী হ্যানয়ে আসিয়ান নিয়ে ওয়ার্ল্ড ইকনোমিক ফোরামের এক আলোচনায় সু চি বলেন, কোনো এক পক্ষের সিদ্ধান্তে এ প্রক্রিয়ার বাস্তবায়ন সম্ভব নয়।

তিনি আরো বলেন, রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে যে অভিযান তাদের সেনাবাহিনী চালিয়েছে, তার শতভাগ দায় মিয়ানমার সরকারের।

অন্যদিকে, একই অনুষ্ঠানে অংশ নিতে ভিয়েতনামে অবস্থানরত পররাষ্ট্র সচিব শহিদুল হক বুধবার ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের স্থায়ীভাবে আশ্রয় দেয়ার কোনো পরিকল্পনা বাংলাদেশ সরকারের নেই। রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে উন্নত দেশগুলোকে কার্যকর ভূমিকা রাখারও আহ্বান জানান তিনি।

-আসাদ রিয়েল, বাংলা টিভি, ঢাকা

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close