আন্তর্জাতিকমধ্যপ্রাচ্য

গোলান মালভূমির মালিকানা সিরিয়ার

জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে গোলান মালভূমির মালিকানা প্রশ্নে ভোটাভুটিতে সিরিয়ার পক্ষে রায় দিয়েছে বেশিরভাগ সদস্যদেশ।

শুক্রবার অনুষ্ঠিত এ সংক্রান্ত ভোটাভুটিতে ১৫১ দেশ প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দিয়েছে। শুধুমাত্র আমেরিকা ও ইহুদিবাদী ইসরাইল প্রস্তাবটির বিপক্ষে রায় দেয়। খবর ওয়াশিংটন পোস্টের।

প্রস্তাবে গোলান মালভূমির ওপর সিরিয়ার মালিকানাকে স্বীকৃতি দেয়া হয়েছে এবং ওই মালভূমিতে ইহুদিবাদী ইসরাইলের সব রকম তৎপরতাকে অগ্রহণযোগ্য বলে ঘোষণা করা হয়েছে।

১৯৬৭ সালের আরব-ইসরাইল যুদ্ধের সময় সিরিয়ার গোলান মালভূমির একাংশ দখল করে নেয় ইহুদিবাদী ইসরাইল যার আয়তন এক হাজার ২০০ বর্গ কিলোমিটার। পরবর্তীতে সিরিয়ার কাছ থেকে দখল করে নেয়া এই ভূখণ্ডকে নিজের অংশ হিসেবে ঘোষণা করে তেল আবিব যদিও আন্তর্জাতিক সমাজে এই দখলদারিত্বকে কোনোদিন স্বীকৃতি দেয়নি।

ভোটাভুটির পর জাতিসংঘে নিযুক্ত সিরিয়ার রাষ্ট্রদূত বাশার আল-জাফারি বলেছেন, সাধারণ পরিষদে এ প্রস্তাব অনুমোদনের মাধ্যমে ইসরাইলকে এই বার্তা দেয়া হয়েছে যে, গোলান মালভূমির ওপর তেল আবিবের দখলদারিত্ব অবৈধ।

জাফারি দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করে বলেন, গোলান মালভূমি সিরিয়ার অবিচ্ছেদ্য অংশ এবং শান্তিপূর্ণ উপায় কিংবা যুদ্ধের মাধ্যমে তা অবশ্যই ফিরিয়ে নেবে দামেস্ক।

বাংলাটিভি/এসএম/এবি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close