জনদুর্ভোগদেশবাংলা

খালের অভাবে জলাবদ্ধতায় কয়েক হাজার বিঘা ফসলি জমি

একটি খালের অভাবে জলাবদ্ধতায় কয়েক হাজার বিঘা ফসলি জমি অনাবাদি থাকছে, নওগাঁর বদলগাছী উপজেলার কুশারমুড়ী মাঠে। ওই মাঠে প্রায় ১ কিলোমিটার একটি খাল খনন করা হলে, জমিগুলোতে তিনটি ফসল আবাদ করা সম্ভব হবে। এতে এলাকার আর্থসামাজিক উন্নয়ন হবে বলে মনে করছেন স্থানীয় কৃষকরা। বিষয়টি নিয়ে কৃষিবান্ধব সরকারের সুদৃষ্টি চেয়েছেন এলাকাবাসী।

এটি নওগাঁর বদলগাছী উপজেলার বালুভরা ইউনিয়নের কুশারমুড়ী ফসলের মাঠ। একসময় এ মাঠের পানি নিষ্কাশনের ড্রেনেজ ব্যবস্থা থাকায় চাঁনপুর, মির্জাপুর ও পাইকপাড়াসহ কয়েকটি গ্রামের প্রায় আড়াই থেকে তিন হাজার বিঘা জমিতে বোরো, আমন ও পাটের আবাদ করা হতো। গত ১৫ থেকে ২০ বছর আগে কুশারমুড়ী মাঠের পানি নিষ্কাশনের ড্রেনের মুখ বন্ধ করে দেয়া হয়। ফলে পানি নিষ্কাষনের বিকল্প কোন ব্যবস্থা না থাকায়, সামান্য বৃষ্টিতেই প্রতিবছর মাঠের ফসল ডুবে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছেন কৃষকরা।

কৃষকরা বলছেন, বর্তমানে তিন ফসলের পরিবর্তনে এসব জমিতে এখন একটি ফসল বোরো আবাদ করা হচ্ছে। যদি মাঠের উত্তর পাশ দিয়ে প্রায় ১ কিলোমিটার খাল খনন করে মরা নদীতে সংযোগ করা হলে, পানি নিষ্কাশন করা সম্ভব হবে। এতে খালের পানি দিয়ে, তিনটি ফসল আবাদ করাও সম্ভব হবে।

মাঠটি পরিদর্শন করে স্থানীয় জনসাধারন এবং সরকারি সহযোগীতায় প্রকল্পের মাধ্যমে জলাবদ্ধতা দূরীকরণের দ্রুত পদক্ষেপ নেয়া হবে বলে জানান, বদলগাছী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাসুম আলী বেগ।

খালটি খনন করা হলে এলাকার কয়েক হাজার কৃষকের আর্থসামাজিক উন্নয়নও হবে।

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close