অন্যান্যআন্তর্জাতিকএশিয়াখেলাধুলা

রোববার নেপালে পর্দা উঠছে ১৩তম এমএ গেমসের, সোনা জয়ের স্বপ্ন বাংলাদেশের

রোববার শুরু হচ্ছে দক্ষিণ এশিয়ার অলিম্পিকখ্যাত, সাউথ এশিয়ান গেমসের ১৩তম আসর। এবারের গেমসে ২৭ ডিসিপ্লিনে ৩২৪টি স্বর্ণপদকের জন্য লড়বেন সাত দেশের অ্যাথলেটরা। রৌপ্য-ব্রোঞ্জ মিলে মোট পদক সংখ্যা ১ হাজার ১৩৫।

এবারের গেমসে বাংলাদেশের ২৫টি ইভেন্টে নারী ও পুরুষ মিলিয়ে ৪৬২ জন অ্যাথলেট অংশ নিচ্ছেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মার্চপাস্টে লাল-সুবজ পতাকা থাকবে গত আসরে সাঁতারে স্বর্ণ জীয় মাহফুজা খাতুন শিলার হাতে।

তিনদফা পিছিয়ে অবশেষ রোববার নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুতে শুরু হচ্ছে দক্ষিণ এশিয়ার সবচেয়ে বড় আসর সাউথ এশিয়ান তথা এসএ গেমস। উৎসবের আমেজ এখন হিমালয়ের দেশ নেপালে। অংশগ্রহণকারী দেশগুলোর অ্যাথলেটদের পদচারণায় মুখর ভেন্যুগুলো।

স্বাগতিকদের প্রধান স্টেডিয়াম দশরথে, উদ্বোধনী অনুষ্ঠানকে রঙিন করে তুলতে শেষ মুহুর্তের প্রস্তুতি তরুণ-তরুণীদের। যেখানে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মূল আকর্ষণ হবে দু’টি, দেশটির জাতীয় খেলা ভলিবল এবং অন্যটি তাদের প্রাচীন সংস্কৃতি নেওরার প্রদর্শন।

এসএ গেমসের তিন যুগের ইতিহাসে এক হাজার ৮১৮টি সোনার মধ্যে এগারশ’টিই পেয়েছে ভারত। নেপালে এবার দশটি ডিসিপ্লিনে অংশ নিচ্ছে না ভারত, সোনা জেতার সম্ভাবনা বেড়েছে বাংলাদেশের।

এবার ২৫টি ডিসিপ্লিনে বাংলাদেশ অংশ নিচ্ছে। ২০১০ সালে সোনা জেতা দলীয় ইভেন্ট ক্রিকেটে এবারো আশা, কারণটা যে ভারত-পাকিস্তান নেই এবার। মেয়েদের ইভেন্টেও শুধু বাংলাদেশ, নেপাল, শ্রীলঙ্কা ও মালদ্বীপ। ফুটবলেও নেই ভারত। তাতে বাংলাদেশের অন্তত ফাইনালে ওঠার সম্ভাবনা উজ্জ্বল।

দলীয় অন্য ইভেন্টগুলোর মধ্যে কাবাডিতে ভারতীয়রাই ফেভারিট। গেমসের মূল আকর্ষণ অ্যাথলেটিকসের হাইজাম্পার মাহফুজুর রহমান, চমকের আশায় আছেন। ভারোত্তোলনে গতবার মাবিয়া আক্তারের উপর প্রত্যাশার পারদটা একটু বেশিই। আর্চারিতে রোমান সানাকে নিয়ে রয়েছে একঝাঁক স্বপ্ন।

মোহাম্মদ হাসিব, ডেস্ক রিপোর্ট

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close