দেশবাংলা

পেঁয়াজ আমাদানি বন্ধের দাবি কৃষকদের

রংপুরের মিঠাপুকুরে পেঁয়াজের ভালো ফলন হয়েছে। আর এখান থেকে অনেকেই অর্থনৈতিকভাবে সম্বলম্বী হয়েছেন। আর শরীয়তপুরের চড়া দামে বীজ সংগ্রহ করায় বেড়ে গেছে উৎপাদন খরচ। আসন্ন মৌসুমের কথা মাথায় রেখে পেঁয়াজ আমাদানি বন্ধের দাবি কৃষকদের।

১ একর জমিতে দেশী পেঁয়াজ চাষ করেছেন রংপুর জেলা মিঠাপুকুর উপজেলা বলদীপুকুর হাজি পাড়া গ্রামের চাষী আসাদুজ্জামান আসাদ, এরইমধ্যে খরচের চেয়ে বেশি টাকার পেঁয়াজ বিক্রি করেছেন তিনি। এবারে এ উপজেলায় ১৫ হেক্টর জমিতে পেঁয়াজ চাষ করা হয়েছে।

পেঁয়াজ চাষ লাভজনক ফসল জানিয়ে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ লোকমান হেকিম জানান, চাষিদের সব ধরনের পরামর্শ দেয়া হচ্ছে।

অন্যান্য বছরে শরীয়তপুরে অক্টোবরের শুরুর দিকে পেঁয়াজ আবাদ করলেও এ বছর অসময়ের বর্ষণে মাঠ প্রস্তুত হতে সময় লেগেছে কিছুটা বেশী, এতে খরচ বেড়ে গেছে, পেঁয়াজ বীজের দাম বাড়ায় বেড়ে গেছে উৎপাদন ব্যয়।

কৃষি বিভাগ বলছে, পেঁয়াজ সংরক্ষণ করতে না পারায় লোকসান গুনতে হচ্ছে কৃষকদের। জেলায় এবছর ৩ হাজার ৩শ ৫০ হেক্টর জমি থেকে উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্র ধরা হয়েছে ৪২ হাজার ২ শ মেট্রিকটন।

নয়ন দাস, শরীয়তপুর প্রতিনিধি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close