ক্রিকেটখেলাধুলা

সোমবার থেকে শুরু সুপার ফোর পর্ব

শেষ হলো বঙ্গবন্ধু বিপিএলের রবিন রাউন্ড পর্ব। সোমবার শুরু হবে সুপার ফোর বা প্লে অফের খেলা। খুলনা টাইগার্স, রাজশাহী রয়্যালস, চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স ও ঢাকা প্লাটুন লড়বে প্লে অফের মঞ্চে, ফাইনালে ওঠার লক্ষ্যে। প্রথম পর্বে দলীয় সর্বোচ্চ ২৩৮ রান এসেছে চট্টগ্রামের মাটিতে।

আর হোম অফ ক্রিকেট ঘটেছে সবচেয়ে বেশি ২০৫ রান তাড়া করা রেকর্ড। যেখানে সব আলো কেড়ে নেন, নাজমুল হোসেন শান্ত, অপরাজিত ১১৫ রানের ইনিংস খেলে।

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের এবারের আসরে, কাগজে কলমে যারা শক্তিশালী দল গড়েছে, তারাই শেষ পর্যন্ত জায়গা করে নিলো শেষ চারে। প্রথম রাউন্ডের ১২ ম্যাচে সমান ৮টি করে ম্যাচ জিতেছে খুলনা টাইগার্স, রাজশাহী রয়্যালস ও চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। আর এক ম্যাচ কম জিতে, প্লে অফে যাওয়া ঢাকা প্লাটুনের অবস্থান চতুর্থ।

দর্শক শূণ্য আসরে মাঠের পারফম্যান্সে উজ্জ্বল ছিলেন জাতীয় দলের তারকারা। তবে মুশফিকুর রহিম দু’বার জ্বলে ‍উঠলেও, পারলেন না তিন অঙ্কের ম্যাজিকাল ফিগার ছুঁতে। সেখানেই বাজিমাত করেছেন, খুলনা টাইগার্সের নাজমুল হোসেন শান্ত।

আসরের প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে হাঁকান শতক। অপরাজিত থাকেন ১১৫ রানে। তার অসাধারণ ইনিংসে ২০৫ রানের বিশাল লক্ষ্য জিতে নেয় খুলনা। আর ঢাকা প্লাটুনের এই সংগ্রহের পেছনে ছিলো মুমিনুল হক ও মেহেদী হাসানের রেকর্ড ১৫৩ রানের জুটি।

গত ২০ ডিসেম্বরে, কুমিল্লা ওয়ারিয়র্সের বিপক্ষে ২৩৮ রানের দলীয় সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড গড়ে ‍চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। মজার বিষয় হলো এবারের আসরে এখন পর্যন্ত সর্বনিম্ন ১৫২ রানটি হয়, চট্টগ্রামের মাটিতে।

আসরে সেরা পাঁচ রান সংগ্রাহকের তালিকায় তিন জনই বাংলাদেশী। মুশফিকুর রহিম ৪৪৯, লিটন দাস ‍৪২২ এবং ইমরুল কায়েসের ঝুলিতে আছে ৪০৫ রান। ৪৫৮ রান নিয়ে সবার শীর্ষে দক্ষিণ আফ্রিকার রিলে রুশো।

আর পাঁচ শীর্ষ বোলাদের তালিকায় ২০ উইকেট নিয়ে মুস্তাফিজুর রহমান বার্তা দিলেন, এখনো হারিয়ে যান নি তিনি। বাকি চারজনের তিনজনই রয়েছেন লোকাল বয়-মেহেদী হাসান রানা, শাহীদুল ইসলাম এবং রুবেল হোসেন। একমাত্র বিদেশী, প্রোটিয়া বোলার রবি ফ্রিলিঙ্ক।

কোয়ালিফায়ার-এলিমিনেটর ফরম্যাটের কারণে শীর্ষ দুই দল ফাইনালে যাওয়ার জন্য পাবে দু’টি সুযোগ। খুলনা টাইগার্স ও রাজশাহী রয়্যালস প্রথমে খেলবে প্রথম কোয়ালিফায়ার ম্যাচ। জয়ী দল সরাসরি পৌঁছে যাবে ফাইনালে, তবে বাদ পড়বে না হেরে যাওয়া দলটি।

অন্যদিকে এলিমিনেটর ম্যাচে লড়বে ঢাকা প্লাটুন ও চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। এ ম্যাচের পরাজিত দল টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে গেলেও, সরাসরি ফাইনালে পৌঁছবে না জয়ী দল। কেননা বিজয়ী দল খেলবে প্রথম কোয়ালিফায়ারে হেরে যাওয়া দলের বিপক্ষে। এ ম্যাচের জয়ী দল পাবে ফাইনালের টিকিট।

সোমবার দুপুর দেড়টায় এলিমিনেটর ম্যাচে ঢাকা প্লাটুনের প্রতিপক্ষ চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। প্রথম কোয়ালিফায়ারে সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় খুলনা টাইগার্সের মুখোমুখি হবে রাজশাহী রয়্যালস।

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close