অপরাধবাংলাদেশ

ভাস্কর্য নির্মাণে বিরোধিতা রাষ্ট্রদ্রোহের শামিল

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য নির্মাণে বিরোধিতা করার নামে বাংলাদেশ রাষ্ট্রের স্থপতির প্রতি কটাক্ষ ও অবমাননা প্রদর্শন করা হচ্ছে, যা রাষ্ট্রদ্রোহের শামিল বলে মন্তব্য করেছেন, বিশেষজ্ঞরা।

আর ভাস্কর্য ভেঙ্গে ফেলা ফৌজদারী অপরাধের মধ্যে পড়ে উল্লেখ করে আইনের কঠোর প্রয়োগের কথা জানিয়েছেন সাবেক আইজিপি একেএম শহীদুল হক।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মতো স্বাধীনতা পূর্ববর্তী সময়ে আবহমান বাংলায়ও ভাস্কর্যের রীতি চলে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় দেশের ঐতিহ্য তুলে ধরতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য স্থাপনের কাজ চলছে। এরমধ্যে রাজধানীর দোলাইরপাড় চৌড়াস্তায় বঙ্গবন্ধু ভাস্কর্য নির্মাণের প্রস্তুতি শেষের পথে।

কুষ্টিয়ার বঙ্গবন্ধুর নির্মিতব্য ভাস্কযটিতে ভেঙ্গে ফেলার ঘটনাকে কুরুচীপূর্ণ ও রাষ্ট্রদ্রোহীতার শামিল হিসেবে আখ্যা দিলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিকী। আর এ অনাকাঙ্খিতে এ ঘটনা ফৌজদারী অপরাধের পর্যায়ে পড়ে বলে জানালেন, বাংলাদেশ পুলিশের সাবেক আইজিপি একেএম শহীদুল হক।

হীন রাজনৈতিক উদ্দেশ্য হাসিলে ভাস্কর্য ও মূর্তিকে এক করে স্বার্থান্বেষী গোষ্ঠী মানুষকে বিভ্রান্ত করার অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে, যা কঠোরভাবে দমনের আহবান জানালেন এই বিশিষ্টজনেরা।

শাহরিয়ার রাজ, বাংলা টিভি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button