বাংলাদেশরাজনীতি

সংসদের দ্বাদশ অধিবেশন শুরু, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার তাগিদ প্রধানমন্ত্রীর

করোনা মহামারীকালে শুরু হলো একাদশ সংসদের দ্বাদশ অধিবেশন জাতীয় সংসদের স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায়  শুরু হয় অধিবেশন।  ১৫ মার্চ রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এ অধিবেশন আহ্বান করেন।

করোনাভাইরাস মহামারী মধ্যে অন্য অধিবেশনগুলোর মত এবারও স্বাস্থ্যবিধি মেনে সংসদ চলবে। কোভিড-১৯ ‘নেগেটিভ’ সনদ থাকা সংসদ সদস্যরাই অধিবেশনে যোগ দিতে পারবেন। অন্য অধিবেশনগুলোর মত এবারও তালিকা অনুযায়ী বৈঠকে যোগ দেবেন সংসদ সদস্যরা।

অধিবেশনের শুরুতে স্পিকার প্রথমে সভাপতিমণ্ডলী মনোনয়ন করেন। স্পিকার- ডেপুটি স্পিকারের অনুপস্থিতিতে এদের মধ্যে অগ্রবর্তীজন অধিবেশনে সভাপতিত্ব করবেন।

সভাপতিমণ্ডলীর মনোনয়নের পর স্পিকার কুয়েতের আদালতে নৈতিক স্খলনজনিত ফৌজদারি অপরাধে দণ্ডিত লক্ষ্মীপুরের এমপি শহিদ ইসলাম পাপুলের সংসদ সদস্য পদ বাতিল হওয়ার বিষযটি স্পিকার সংসদকে অবহিত করেন। গত ২২ ফেব্রুয়ারি পাপুলের সদস্য পদ বাতিল করে সংসদ। সংসদ অধিবেশনে বিষয়টি জানানোর বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

পরে স্পিকার শোক প্রস্তাব উত্থাপন করেন। চলতি সংসদের সদস্য সিলেট-৩ আসেনের মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরীর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করা হয়।

এছাড়া প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম, সাবেক প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ আমানউল্লাহ, সাবেক সংষদ সদস্য তোয়াবুর রহিম, আব্দুল মজিদ মণ্ডল, মুনসুর আহমেদ, মওদুদ আহমদের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করা হয়।

দৈনিক জনকণ্ঠের সম্পাদক আতিকউল্লাহ খান মাসুদ, সিকদার গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজের চেয়ারম্যান জয়নুল হক সিকদার, ভাষা সৈনিক আলী তাহের মজুমদার, কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ, সাংবাদিক শাহীন রেজা নূর, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আবুল হাসনাত, বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্নর খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ, সাবেক বিচারপতি আব্দুল হাই, সংসদ সদস্য মহিবুর রহমান মানিকের মা জাহান আরা চৌধুরী, প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসক এ বি এম আবদুল্লাহর স্ত্রী মাহমুদা বেগম, অভিনেতা এটিএম শামসুজ্জামান, অভিনেতা মুজিবুর রহমান দিলু, নটরডেম কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ ফাদার জেএস পিশোতোর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করা হয় সংসদে।

এছাড়া করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশ-বিদেশে যারা মারা গেছেন তাদের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করা হয়। একই সঙ্গে দেশ-বিদেশের বিভিন্ন স্থানে দুর্ঘটনায় হতাহতদের জন্য শোক প্রকাশ করে সংসদ। রাজশাহীর কাটাখালীতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১৭ জনের মৃত্যুতেও সংসদে শোক প্রকাশ করা হয়।

প্রথম দিন করোনাভাইরাস পরীক্ষায় নেগেটিভ রিপোর্ট পাওয়া সংসদ সদস্যরা অংশ নিচ্ছেন। এরপর প্রতি কার্যদিবসে সর্বোচ্চ ৯০ জনকে পর্যায়ক্রমে আমন্ত্রণ জানানো হবে।

সংসদ ভবনে দর্শনার্থী এবং গণমাধ্যমকর্মীদের প্রবেশও নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তবে কোভিড-১৯ ‘নেগেটিভ’ সনদ থাকলে সংসদের বৈঠকের পর সাংবাদিকরা সংসদ ভবনে ঢুকতে পারবেন।

যেসব কর্মকর্তা-কর্মচারী অধিবেশন চলাকালে সংসদে দায়িত্ব পালন করবেন, তাদেরও থাকতে হবে কোভিড-১৯ ‘নেগেটিভ’ সনদ। সেজন্য সংসদ সদস্য ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সংসদের মেডিকেল সেন্টারের মাধ্যমে করোনাভাইরাস পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

বাংলাটিভি/শহীদ

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button