রাজনীতি

সিলেটে জাতীয় ঐক্য ফ্রন্টের সমাবেশ বিকালে

সিলেটের সমাবেশকে নির্বাচনী প্রচারণার মহড়া হিসেবে নিয়েছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতারা। পাশাপাশি সমাবেশ থেকে সরকারকে বিশেষ বার্তাও দিতে চান তারা। আর এই সমাবেশের মধ্য দিয়ে বিএনপি নতুন রাজনৈতিক মিত্র জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নেতাদের নিয়ে রাজপথের আন্দোলনে সক্রিয় হতে চান।

একাদশ সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ১৪ শর্তে দুপুর ২টায় নগরীর ঐতিহ্যবাহী রেজিস্টারি মাঠে সমাবেশের অনুমতি দিয়েছে পুলিশ।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ড. আবদুল মঈন খান, জেএসডি সভাপতি আসম আবদুর রব ও নাগরিক ঐক্যর আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্নাসহ ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতারা বুধবার সকালেই জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রথম সমাবেশে যোগ দিতে সিলেট পৌঁছান ।

প্রথম প্রহরে হযরত শাহ জালাল (রহ.) ও শাহ পরান (রহ.) এর মাজার জিয়ারত করেন নেতারা।

মাজার জিয়ারতের সময় মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সঙ্গে ছিলেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ড. আবদুল মঈন খান, জেএসডি সভাপতি আসম আবদুর রব, সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালেক রতন, নাগরিক ঐক্যর আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ড. এনামুল হক চৌধুরী, এম এ হক,  খন্দকার আবদুল মোকতাদির, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, সিলেট জেলা বিএনপির সভাপতি আবুল কাহের শামীমসহ স্থানীয় বিএনপি নেতারা।

সিলেটে ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র ও জেলা বিএনপির সভাপতি আবুল কাহের চৌধুরী শামীম বলেন, ইতিমধ্যে সমাবেশ সফলে সার্বিক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। মানুষ স্বতঃস্ফূর্তভাবে এই সমাবেশে যোগ দেবে বলে মন্তব্য করেন এই বিএনপি নেতা।

গত ১৩ অক্টোবর গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে জাতীয় প্রেস ক্লাবে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আনুষ্ঠানিক আত্মপ্রকাশ হয়। সেদিন ঐক্যফ্রন্টের পক্ষে ৭ দফা দাবি ও ১১ দফা লক্ষ্যের কথা উপস্থাপন করা হয়। বিএনপি ছাড়াও জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডি, জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া ও নাগরিক ঐক্য মিলে এই ঐক্যফ্রন্ট গঠিত হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close