অন্যান্যবাংলাদেশ

ঐক্যবদ্ধভাবেই বিশ্ব ইজতেমা, ১দিন বাড়ানোর সিদ্ধান্ত

গেল ডিসেম্বরে নেতৃত্ব দিয়ে কোন্দলের জেরে বিরোধে জড়িয়ে পড়েন তাবলীগ জামাতের দু’পক্ষের অনুসারীরা। সংঘর্ষ এমন পর্যায়ে পৌঁছায় যে প্রাণ হারাতে হয় একজনকে। এ অবস্থায় এ বছরের ইজতেমা আয়োজনে বেশ কয়েক দফা দু’পক্ষের সঙ্গে বৈঠক করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও ধর্ম প্রতিমন্ত্রী।

তাবলীগ জামাতের দুপক্ষের সমান সুযোগ নিশ্চিত করতে বিশ্ব ইজতেমা একদিন বাড়িয়ে অনুষ্ঠিত হবে ১৫ থেকে ১৮ই ফেব্রুয়ারি। মঙ্গলবার( ৫  ফেব্রুয়ারি) বিকেলে সচিবালয়ে দুই পক্ষের সঙ্গে বৈঠক শেষে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী জানান, আখেরি মোনাজাতের বিষয়ে দুই পক্ষ মিলে সিদ্ধান্ত নেবে। এছাড়া মাওলানা সাদ কান্ধলভি অংশ নিচ্ছেন না বলেও জানানো হয়।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আব্দুল্লাহ, ‘ইজতেমা বাস্তবায়নে দুই পক্ষকেই দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। প্রথম দুই দিন মাওলানা জোবায়ের ও পরের দুই দিন সৈয়দ ওয়াসীফুল ইসলামের ব্যবস্থাপনায় ইজতেমা পরিচালিত হবে। ফলে ইজতেমা চারদিনের করা হয়েছে। মঙ্গলবার (৫ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় ধর্ম মন্ত্রণালয়ে ইজতেমা নিয়ে দুই পক্ষের সঙ্গে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের তিনি এ সিদ্ধান্তের কথা জানান।

রতিমন্ত্রী বলেন, ‘এবার ইজতেমায় যেন কোনো প্রকার গণ্ডগোল না হয়, সেজন্য উভয় পক্ষকেই বলা হয়েছে। প্রয়োজনে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পাশাপাশি সেনাবাহিনীও নামানো হতে পারে। দুই দিন করে উভয়ই ইজতেমার ব্যবস্থাপনা করলেও আখেরি মোনাজাত নিয়ে এখনো শঙ্কা কাটেনি। তাই তাবলিগ জামাতের মুরুব্বিদের এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে বলা হয়েছে। আখেরি মোনাজাতের বিষয়ে তারা সিদ্ধান্ত নেবেন।’

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, ‘এবারের ইজতেমায় যেন বিদেশি অতিথিরা নির্বিঘ্নে আসতে পারেন, সেজন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়গুলোকে বিশেষভাবে অনুরোধ করা হয়েছে। অতিথিদের ভিসা সংক্রান্ত কোনো জটিলতা যেন না থাকে, তারা। দেশে আসার পর যেন সুন্দর ও সুশৃঙ্খলভাবে বসতে পারেন, সে ব্যাপারেও বলা হয়েছে।’

আখেরি মোনাজাত পরিচালনার বিষয়ে তাবলীগ জামাতের মুরুব্বিরা নেবেন বলে জানান ধর্ম প্রতিমন্ত্রী। ধর্মপ্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, আখেরি মোনাজাত বিশেষ বিষয়। এটা কে করবে, বা কারা করবে, এই বিষয়ে জামাতের মুরুব্বিদের জানানো হয়েছে। এই ভার তারাই নেবেন।’

ব্যস্ততার কারণে মাওলানা সাদ কান্ধলভি এবার ইজতেমায় অংশ নিতে পারছেন না বলেও জানান তিনি।

বাংলাটিভি/কায়েস

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close