প্রধানমন্ত্রীবাংলাদেশ

এ বছরের মধ্যেই দেশের শতভাগ মানুষ বিদ্যুৎ পাবে: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বিদ্যুতের জন্য এখন আর মানুষকে ঘোরাঘুরি করতে হয় না, বিদ্যুতের সংযোগই পৌঁছে যায় মানুষের কাছে। দেশের ৯৩ ভাগ মানুষ বিদ্যুৎ পাচ্ছে। দেশের ঘরে ঘরে আমরা আলো জ্বালবো।

বুধবার গণভবনে ভিডিও কনফারেন্স চলাকালে এ কথা বলেন তিনি। বুধবার (৬ ফেব্রুয়ারি) সকালে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে ভিডিও কনফারেন্সিং এর মাধ্যমে কয়েকটি উন্নয়ন কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসবকথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী ১ হাজার ৬২ মেগাওয়াট উৎপাদন ক্ষমতার নতুন ৬টি বিদ্যুৎ কেন্দ্র উদ্বোধন করেন। ক্যাপটিভ ও নবায়ণযোগ্য জ্বালানিসহ বর্তমানে দেশের বিদ্যুৎ উৎপাদন সক্ষমতা ২০ হাজার ৮৫৪ মেগাওয়াট। নতুন ৬টি বিদ্যুকেন্দ্র স্থাপন করায় জাতীয় গ্রিডে যোগ হলো ১ হাজার ৬২ মেগাওয়াট। নবনির্মিত এসব বিদ্যুৎকেন্দ্রের মধ্যে রয়েছে ভোলা ২২৫ মেগাওয়াট কম্বাইন্ড সাইকেল বিদ্যুৎকেন্দ্র, চাঁদপুর ২০০, আশুগঞ্জ ১৫০, রুপসা ১০৫, সিরাজগঞ্জ ২৮২ এবং জুলদা, চট্টগ্রাম ১০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎকেন্দ্র।

একই অনুষ্ঠান থেকে সাবমেরিন ক্যাবলের মাধ্যমে সন্দ্বীপ উপজেলায় বিদ্যুৎ ও ইন্টারনেট সরবরাহের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। এছাড়াও, ১২টি উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন শেখ হাসিনা। দেশে প্রথম সাবমেরিন কেবলের মাধ্যমে মূল ভূখন্ডের সঙ্গে দ্বীপ উপজেলা সন্দ্বীপের বিদ্যুৎ সংযোগ শুরু হয় গত ১৫ নভেম্বর। আজ বুধবার এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন টানা তৃতীয় মেয়াদে সরকার গঠন করা প্রধানমন্ত্রী।

এসময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আস্যস্থ্য করেন, গ্রামের মানুষ গ্রামেই সকল নাগরিক সুবিধা পাবে। তিনি বলেন, ‘সমগ্র বাংলাদেশের উন্নয়নটাই আমাদের লক্ষ্য। প্রত্যেকটি গ্রাম শহর হবে। বাংলাদেশের প্রত্যেকটি গ্রামের মানুষ গ্রামেই সকল নাগরিক সুবিধা পাবে। সেইভাবে আমরা সব করে দেবো। গোটা বাংলাদেশের মানুষই রাজার হালে থাকব ‘।

অনুষ্ঠানের শুরুতে প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ উপদেষ্টা তৌফিক-ই এলাহী ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান। এরপর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ ও মন্ত্রণালয়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা শুভেচ্ছা জানান। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন প্রধানমন্ত্রীর মূখ্য সচিব নজিবুর রহমান। অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। এছাড়াও, অনুষ্ঠানে সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, সাবেক গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন প্রধানমন্ত্রীর পাশে উপস্থিত ছিলেন। ভিডিও কনফারেন্সিং এর মাধ্যমে সূচনা বক্তব্য শেষে প্রকল্পগুলোর শুভ উদ্বোধন করেন। এরপর ভিডিও কনফারেন্সিং এর মাধ্যমে কয়েকটি জেলায় উপকারভোগীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।

বাংলাটিভি/কায়েস

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close