দুর্ঘটনাবাংলাদেশ

ডেঙ্গুজ্বরে ৪ বছরের শিশুর মৃত্যু

শাহরিয়ার রাজ, ঢাকা : ডেঙ্গুজ্বর নিয়ে আরিজা তাজরিয়ান আনফি নামে সাড়ে ৪ বছরের এক শিশু ভর্তি হয়েছিলো রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে। এরপর কয়েকটি হাসপাতাল ঘুরে সর্বশেষ শিশু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় শিশুটি। একমাত্র মেয়েকে হারিয়ে পরিবারটিতে চলছে শোকের মাতম। পরিবারের দাবি, সুচিকিৎসা পেলে হয়ত বাঁচানো যেত আনফিকে।

পরপর দুটি ছেলে সন্তানের পর আনফির জন্মটা এই পরিবারে যেন বাড়তি আনন্দের মাত্রা দিয়েছিল। কিন্ত মাত্র সাড়ে ৪ বছর বয়সের আনফির অকাল মৃত্যুতে সেই আনন্দ ঢেকে দেয় নিকষ কালো মেঘে। একমাত্র আদরের মেয়েকে হারিয়ে বার বার মুর্ছা যাচ্ছেন মা।

২৫ তারিখ দিবাগত রাতে আনফি অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে নিয়ে যাওয়া হয় সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে। পরীক্ষা নিরীক্ষার পর চিকিৎসকরা তাকে ডেঙ্গু পজেটিভ শনাক্ত করে।

আনফির মা-বাবা জানান, সোহরাওয়ার্দী ও ইবনে সিনা ঘুরে শেষমেষ তাকে নিয়ে যাওয়া হয় শিশু হাসপাতালে। শিশু হাসপাতালের চিকিৎসকরা ছোট্ট শিশুটিকে প্রয়োজনের অতিরিক্ত স্যালাইন শরীরে প্রবেশ করলে তার ছোট্ট শরীর বহন করতে পারেনি।

ফলে ১ সেপ্টেম্বর সকালে সবাইকে কাদিঁয়ে চিরদিনের জন্য আনফি বিদায় নেয় পৃথিবী থেকে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে শিশু হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বলছেন, শিশুটির মৃত্যু যদি কোন চিকিৎসকের অবহেলার কারণে হয় তা তদন্ত সাপেক্ষে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এই পরিবারটি কি হারিয়েছে উপলগ্ধি করছে একমাত্র তারাই। আনফির মত শিশুদের অনাকাঙ্খিত আর অকাল মৃত্যু যেন না হয় সুন্দর এই পৃথিবীতে। পৃথিবীটা গড়ে উঠুক শিশুদের বাসের যোগ্য হয়ে এমনটাই প্রত্যাশা সবার।

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close