প্রধানমন্ত্রীবাংলাদেশ

তবে কি বিদ্যুৎ উৎপাদন বন্ধ করে দেবো, প্রশ্ন প্রধানমন্ত্রীর

যেখানে এক কিলোওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনে ২৬ টাকা খরচ হয়। সেখানে গ্রাহকদের কাছ থেকে নেওয়া হচ্ছে ৩ থেকে ৪ টাকা। তাহলে বিদ্যুতের দাম বাড়ল কোথায়? বৃহস্পতিবার একাদশ জাতীয় সংসদের চতুর্থ অধিবেশনের সমাপনী ভাষণে প্রধানমন্ত্রী এ প্রশ্ন রাখেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রাকৃতিক গ্যাস দিয়ে বিদ্যুৎ উৎপাদনেও ৬ থেকে সাড়ে ৬ টাকা লাগে। গ্যাসের সমস্যার কারণে এলএনজি আমদানি করা হয়েছে। এর দাম পড়ে ৬০ টাকা। সেখানে সরকার ভর্তুকি দিচ্ছে। বিদ্যুতের যখন চরম দুরবস্থা, তখন স্বল্প, মধ্য ও দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনার মাধ্যমে সরকার উৎপাদন বাড়িয়েছে। বিদ্যুতের দাম বাড়ার সমালোচনাকারীদের সমালোচনা করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এসব  কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, আর তা না হলে যে দাম উৎপাদনে খরচ হবে, সেই দামে কিনতে হবে। লাভ করতে চাই না। কিন্তু অন্তত খরচের টাকাটা পেতে হবে। সেই খরচের টাকাটাও তো আমরা পাচ্ছি না।

বিদ্যুৎ উৎপাদনে ভর্তুকি দিয়ে কম টাকায় গ্রাহকদের কাছে পৌঁছে দেওয়ার পরও যদি কেউ বলেন দাম কেন বাড়ানো হলো, তাহলে বিদ্যুতের দরকার নেই। উৎপাদন বন্ধ করব কি? এত কিছুর পরও যদি কথা উঠে তাহলে বিদ্যুৎ ব্যবহার করার দরকার নেই।

সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড তুলে ধরে সরকারপ্রধান বলেন, বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। এই ধারা অব্যাহত রাখা গেলে উন্নয়নসমৃদ্ধ সোনার বাংলা গঠন করা সম্ভব  হবে। ভোটারের মঙ্গলে কাজ করা সব সাংসদের দায়িত্ব। সব এলাকায় বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন প্রকল্পের কাজ চলছে। সেগুলো সুষ্ঠুভাবে সম্পাদন হচ্ছে কি না, সাংসদেরা যেন তা দেখভাল করেন। তাতে উন্নয়ন ত্বরান্বিত হবে।

বাংলাটিভি/ এসনূর

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close