দেশবাংলা

নির্যাতনের ভিডিও পাঠিয়ে প্রবাসী মায়ের কাছে টাকা দাবি

টাকার জন্য নির্মম নির্যাতন করা হয়েছে পিতৃহারা ৬ বছর বয়সী ছোট শিশু জিসানকে। সেই নির্যাতনের ভিডিও তাঁর প্রবাসী মায়ের কাছে পাঠিয়ে টাকা দাবি করা হয়েছে। নির্যাতনের এ দৃশ্য সইতে না পেরে সৌদি আরব থেকে ছুটে এসেছেন মা। এ ঘটনায় নির্যাতনকারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

টাকার জন্য ৬ বছরের শিশু জিসান মিয়াকে নগ্ন করে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন করেছে তারই আপন চাচা। এমনকি নির্যাতন করে নির্যাতনের সেই ভিডিও নির্যাতিত শিশু জিসানের সৌদি প্রবাসী মায়ের কাছে অনলাই যোগাযোগ মাধ্যম ইমুতে পাঠিয়ে টাকা দাবি করা হয়েছে।

এ তথ্য জানিয়েছেন জিসানের মা সুমনা বেগম। ঘটানাটি ঘটেছে হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ পৌর এলাকার চরগাঁও গ্রামে।

এলাকাবাসী জানান, ওই গ্রামের সুফি মিয়ার সাথে বিয়ে হয় সুমনা বেগমের। সুফি মিয়ার মুত্যুর পর ছোট শিশুর কথা চিন্তা করে দুইমাস পূর্বে জীবিকার তাগিদে তিনি পাড়ি জমান সৌদি আরব। সৌদি আরবে গিয়ে শান্তিতে থাকতে পারেননি স্বামীহারা সুমনা।

টাকার জন্য তার সন্তানকে নির্যাতন করতো দেবর স্বামী স্বপন মিয়া। হতভাগা মা সন্তানকে নির্যাতন থেকে বাঁচাতে ধাপে ধাপে স্বপনের কাছে টাকাও পাঠান। কিন্তু নির্যাতন থামেনি। সম্প্রতি শিশু জিসানকে নগ্ন করে নির্যাতন করে সেই দৃশ্য ভিডিও করে টাকা চেয়ে তা পাঠান মায়ের নিকট।

পরে স্থানীয় মুরুব্বিয়ানদের সহযোগিতায় শিশু জিসানকে তাঁর মামার মাধ্যমে নানার বাড়িতে পাঠানো হয়েছে। নির্যাতনকারীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চান এলাকাবাসী ও স্বজনরা।

এদিকে এ ঘটনার খবর পেয়ে বুধবার ভোরে নবীগঞ্জ থানার ওসি আজিজুর রহমানের নেতৃত্বে এস আই শামসুল ইসলামসহ একদল পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে অবশেষে বানিয়াচং উপজেলার খাগাউরা গ্রাম থেকে নির্যাতনকারী স্বপন মিয়াকে গ্রেফতার করে।

এ ব্যাপারে হবিগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্ল্যা সাংবাদিক সম্মেলন করে ঘটনার বর্ণনা জনানান।

মতিউর রহমান মুন্না, নবীগঞ্জ প্রতিনিধি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close