দেশবাংলা

নকলায় দুইশ গজের মধ্যে তিন ব্রীজ

শেরপুরের নকলায় অপরিকল্পিতভাবে দুইশ গজের মধ্যে তিনটি ব্রীজ নির্মাণে সমালোচনার ঝড় উঠেছে। এর মধ্যে এবারের বন্যায় তিনটি ব্রীজের মধ্যে একটি ভেঙে গেছে। বাকী দুটি সংযোগ সড়কসহ ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। এতে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন স্থানীয়রা।

তারা বলছেন, অযথা তিনটি ব্রীজ নির্মাণে সরকারের কোটি টাকা অপচয় ছাড়া আর কিছুই নয়। তাদের দাবি, মজবুতভাবে একটি ব্রীজ অথবা সরাসরি উচুঁ করে রাস্তা নির্মাণের।

শেরপুরের নকলা উপজেলার নামাপাড়া এলাকায় দুইশ গজের মধ্যে অপরিকল্পিতভাবে নির্মিত হয়েছে তিনটি ব্রীজ। আর সেগুলো এখন বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ। এটা এখন সবার কাছে হাস্যরসের বিষয়।

স্থানীয়রা জানায়, একটি ব্রীজ থাকা স্বত্তেও সেখানে অপরিকল্পিতভাবে আরো দুটি ব্রীজ মজবুতভাবে নির্মাণ না করায় টেকসই হয়নি বেশিদিন। নির্মাণের কয়েক মাস যেতে বন্যায় একটি ব্রীজ ভেঙে গেছে। ফাটল ধরেছে আরেকটিতে একই সাথে ধসে গেছে তিনটি ব্রীজের সংযোগ সড়কের মাটি।

এতে সরকারের প্রায় কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। পাশাপাশি ব্রীজ ও রাস্তা ধ্বসে যাওয়ায় দুধে রামচর, চরমধূয়া নামাপাড়া, কাজিয়ারচর, জামালপুরসহ দুইপাড়ের প্রায় আট গ্রামের মানুষ রয়েছে চরম ভোগান্তিতে।

স্থানীয় সংসদ সদস্যের সাথে পরামর্শ করে নতুন রাস্তাসহ আরেকটি ব্রীজ নির্মাণের কথা ভাবছেন বলে জানান, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসার মোঃ জাহাঙ্গীর আলম।

এদিকে শীঘ্রই রাস্তা সংস্কারের আশ্বাস দিলেন, শেরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহিদুর রহমান। দ্রুত সময়ের মধ্যে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করবে কর্তৃপক্ষ, এমন প্রত্যাশা নদীপাড়ের মানুষের।

শাকিল মুরাদ, শেরপুর প্রতিনিধি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close