দেশবাংলা

মহেশপুর সীমান্তে ক্রমেই বাড়ছে অনুপ্রবেশকারীর সংখ্যা

ঝিনাইদহের মহেশপুর সীমান্ত দিয়ে ক্রমেই বাড়ছে ভারতীয় অনুপ্রবেশকারীর সংখ্যা। সেখানে দীর্ঘদিন নাগরিকত্ব না পেয়ে নানা বঞ্চনার শিকার হয়ে ভুক্তভোগীরা সীমান্ত দিয়ে প্রবেশ করছেন বাংলাদেশে। বিজিবি সীমান্ত এলাকায় কঠোর সতর্ক অবস্থানে থাকলেও তাদের চোখ ফাকি দিয়ে রাতের বিভিন্ন সময় ভারত এবং বাংলাদেশি দালালদের মাধ্যমে বাংলাদেশে ঢুকে পড়ছে নারী-পুরুষ, শিশুসহ অসংখ্য মানুষ।

চলতি মাসের বর্তমান সময় পর্যন্ত ভারতের বেঙ্গালুরু, কর্নাটক, উত্তরপ্রদেশ ও আসামের বিভিন্ন এলাকা থেকে সীমান্ত দিয়ে অনুপ্রবেশকারী ২২৫ জন বিজিবির হাতে আটক হয়েছেন। তবে সীমান্ত এলাকায় এখনও অনেকেই অবস্থান করছে বলে জানা গেছে।

ভারতীয় পুলিশ এবং মহাজনদের নির্যাতনের শিকার হয়ে তারা বাংলদেশে চলে এসেছে বলে জানায় স্থানীয়রা।

সীমান্ত এলাকার মানুষ জানান, রাতের বিভিন্ন সময় বিজিবি’র চোখ ফাকি দিয়ে তারা বাংলাদেশে ঢুকে পড়ছে কাটাতার বিহীন এলাকা দিয়ে। ফলে ব্যাপকভাবে প্রভাব পড়ছে ফসলের ওপর। অনেকেই সীমান্ত এলাকার বিভিন্ন বাড়িতে অবস্থান নিচ্ছেন।

বিজিবির হাতে আটক অনুপ্রবেশকারীদের মামলা দায়েরের প্রেক্ষিতে আদালতে সোপর্দ করা হচ্ছে বলে, জানালেন মহেশপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রাশেদুল আলম।

জেলার মহেশপুরে ভারতীয় সীমান্ত রয়েছে ৫৭ কিলোমিটার, এর মধ্যে কাটাতার বিহীন এলাকা রয়েছে প্রায় ১১ কিলোমিটার। এই সীমান্ত এলাকার মাটিলা, লেবুতলা, মকধ্বরপুর, বাশঁবাড়ীয়া, পলিয়ানপুরসহ বিভিন্নসীমান্ত দিয়ে এ অনুপ্রবেশ ঘটছে।

 জিয়াউর রহমান, মহেশপুর প্রতিনিধি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close