দেশবাংলা

অবসরপ্রাপ্ত ল্যান্স কর্পোরালকে পিটিয়ে আহত

ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম আদালতে শালিস চলাকালে বিচারপ্রার্থী সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত ল্যান্স কর্পোরাল রফিকুল ইসলামসহ কয়েকজনকে পেটানোর অভিযোগ উঠেছে, জয়পুরহাটের আক্কেলপুর রুকিন্দীপুর ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে।

গত ৪ ডিসেম্বর ঐ ইউনিয়ন পরিষদে এ ঘটনা ঘটে। এরপর উভয়পক্ষের আহত ৫ জন  হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। ভুক্তভোগীদের থানা বা মিডিয়াতে কিছু না বলতে, নানা রকম ভয়-ভীতি ও হুমকি দিয়ে আসছে ইউপি চেয়ারম্যান ও তার লোকজন। এদিকে, তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস জেলা প্রশাসনের।

জয়পুরহাটের আক্কেলপুরের রুকিন্দীপুর ইউনিয়নের পশ্চিম আওয়ালগাড়ী মীরপাড়া গ্রামের, রফিকুল ইসলামের পরিবারের সঙ্গে, প্রতিবেশী চাচাতো ভাই দুদু মিয়ার পরিবারের জমি নিয়ে দীর্ঘদিনের বিরোধ ছিল। নিষ্পত্তির জন্য ইউনিয়ন পরিষদ থেকে উভয়পক্ষকে গত ৪ ডিসেম্বর ডাকা হয়।

শালিস চলাকালে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে পরিস্থিতি শান্ত না করে, চেয়ারম্যান লাঠি দিয়ে ৫জনকে পিটিয়ে আহত করে। আহতরা হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন।

থানা বা মিডিয়াতে না জানানোর ভয়-ভীতি ও হুমকির মধ্যে রয়েছেন রফিকুলের পরিবার। এ ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যানসহ অভিযুক্তদের বিচার দাবি করেছেন ভুক্তভোগী ও স্থানীয়রা।

কক্ষের দরজা বন্ধ করে মারার বিষয় এড়িয়ে গিয়ে, অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারম্যান আহসান কবীর এপ্লব বলেন, দু’পক্ষকে শান্ত করতেই তাদের সামান্য পেটানো হয়েছে।

গ্রাম আদালতে মারধর করলে তা আইন পরিপন্থী তবে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানালেন, জেলা প্রশাসনের উপ-পরিচালক ইশরাত ফারজানা।

স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের ক্ষমতার অপব্যবহার বন্ধ করতে সংশ্লিষ্টদের আরও তৎপর হওয়ার আহবান স্থানীয়দের।

রেজাউল করিম, জয়পুরহাট প্রতিনিধি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button