দেশবাংলা

প্রাণচাঞ্চল্যতা ফিরেছে গোটা শিল্পাঞ্চলে

টানা ৫দিন আমরণ অনশন কর্মসূচির পর শনিবার ভোরে কাজে যোগদান করেছে পাটকল শ্রমিকরা। খুলনার সাতটি পাটকলে স্থায়ী ও অস্থায়ী প্রায় ৫০ হাজার শ্রমিক রয়েছেন। যারা সবাই কাজে যোগদান করেছেন। প্রাণচাঞ্চল্যতা ফিরেছে গোটা শিল্পাঞ্চলে।

রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল সিবিএ-ননসিবিএ সংগ্রাম পরিষদের যুগ্ম-আহ্বায়ক মো. মুরাদ হোসেন বলেন, ১৫ দিনের মধ্যে মজুরী কমিশনের স্লিপ প্রদান করা হবে মর্মে আমরা আন্দোলন প্রত্যাহার করেছি। ১৬ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার আমাদের স্লিপ প্রদান করা হবে।

শনিবার ভোর ৬টা থেকে শ্রমিকরা কাজে যোগদান করেছেন। ফলে স্বাভাবিক অবস্থা ফিরে এসেছে শিল্পাঞ্চলে।

বিজেএমসি সূত্রে জানা যায়, আমরণ অনশনের সময় খুলনাঞ্চলের রাষ্ট্রায়ত্ব ৯ পাটকলের মধ্যে যশোরের জেজেআই ও কার্পেটিং জুট মিল বাদে বাকী ৭টি পাটকলের উৎপাদন সম্পূর্ণ বন্ধ ছিলো। এ পাটকলগুলোতে প্রতিদিন উৎপাদনের লক্ষমাত্রা ২৭২ দশমিক ১৭ মেট্রিক টন।

সেখানে চালু থাকা ওই দু’টি পাটকলে উৎপাদন হয়েছে মাত্র ৮৬ দশমিক ৩৯ মেট্রিক টন। পাটকলগুলোতে প্রতিদিনের উৎপাদিত পণ্যের বাজার মূল্য প্রায় ১ কোটি টাকা। সে হিসেবে শ্রমিকদের ৫দিনের অনশনে ৫ কোটি টাকার ক্ষতি হয়।

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close