আন্তর্জাতিকএশিয়া

ছেলেকে উদ্ধার করতে ১৪০০ কি.মি. পাড়ি দিলো মা

তিন দিন স্কুটি চালিয়ে ১৪০০ কিলোমিটার সড়ক পাড়ি দিয়ে আরেক রাজ‌্যে আটকে পড়া ছেলেকে উদ্ধার করলেন ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশের এক মা।

ভারতে চলছে ২১ দিনের লকডাউন। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া লোকজনের ঘরের বাইরে যাওয়া মানা। তাই বলে সন্তান ‘বিপদে’ আছে জেনে মা-তো চুপচাপ বসে থাকতে পারেন না।

এ বিষয়ে রাজিয়া বেগমের বলেন, দুইচাকার যান স্কুটি চালিয়ে এতো রাস্তা পাড়ি দেওয়া একজন নারীর পক্ষে সহজ ছিল না, তবে ছেলেকে ঘরে আনার দৃঢ়প্রতিজ্ঞা আমার সব ভয়কে দূরে ঠেলে দিয়েছিল। যাত্রা পথে আমি এমন সময় পার করেছি যখন দেখেছি রাতের আঁধারে কোথাও কেউ নেই। চারিদিকে শুধু নীরবতা।

জানা যায়, নাজিমুদ্দিন বন্ধুকে রেখে আসতে গত ১২ মার্চ নাজিমুদ্দিন তেলেঙ্গানার নিলোরের রাহামাতাবাদে যান। কিন্তু এর মধ‌্যে ভারতজুড়ে লকডাউন ঘোষণায় তিনি সেখানে আটকা পড়েন। আর ছোট ছেলেকে ফিরিয়ে আনতে পুলিশের ভয়ে বড় ছেলেকে পাঠাননি রাজিয়া বেগম।

তাই কারণ জানিয়ে স্থানীয় পুলিশের অনুমতি নিয়ে তেলেঙ্গানা রাজ‌্য থেকে গত সোমবার যাত্রা শুরু করেন মা রাজিয়া বেগম (৪৮)। উদ্দেশ‌্য পার্শ্ববর্তী রাজ‌্য অন্ধ্রপ্রদেশে আটকে পড়া ছেলেকে বাড়ি  নিয়ে আসা। আর তা সফলভাবে শেষে করে গত বুধবার ছেলেকে নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন রাজিয়া।

রাজিয়া বেগম নিজামাবাদ সরকারি স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা। তার দুই সন্তানের একজন প্রকৌশলী গ্রাজুয়েট, অন‌্যজন ১৯ বছর বয়সী নাজিমুদ্দিন।– নিউজ১৮ বাংলা

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close