অপরাধবাংলাদেশ

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিদেশি প্রতারক চক্রের দৌরাত্ম্য

পর্ব ১

গত ৬ মাসে আন্তর্জাতিক প্রতারক চক্রের ৫০ জনেরও বেশি সদস্যকে গ্রেফতার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। ফেসবুকসহ বিভিন্ন অনলাইন মাধ্যমে, রাতারাতি টাকা কামানোর প্রলোভন দেখিয়ে অনেকের কাছ থেকে অর্থ হাতিয়ে নেয় তারা।অপরাধ বিশেজ্ঞরা বলছেন, সংঘবদ্ধ এই প্রতারক চক্রের জাল বহুমাত্রিক।

সম্প্রতি ফেসবুক-হোয়াটস অ্যাপে প্রতারক চক্রের ঔদ্ধত্য বেড়েছে। হঠাৎ করে বিদেশ থেকে বড় টাকা পাওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে, মানুষকে টার্গেট করে তারা। ফাঁদে কেউ ভিড়লে, তাদের কাছে বিভিন্ন অযুহাতে চাওয়া হয় নগদ টাকা।

এরপর দফায় দফায় টাকা খরচ করে যখন সেসব ব্যক্তিরা যখন বুঝতে পারেন যে প্রতারিত হচ্ছেন, তখনই সটকে পড়ে অফার দেয়া চক্রের সদস্যরা।

সাম্প্রতিক সময়ে সিআইডির অভিযানে আন্তর্জাতিক প্রতারক চক্রের অন্তত অর্ধশত সদস্য গ্রেফতার হয়েছে। গ্রেফতারকৃতদের বেশিরভাগই বিদেশি নাগরিক। এদের মধ্যে রয়েছে ক্লাব খেলোয়াড় এবং বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। তবে বাংলাদেশে পড়তে আসা বিদেশী শিক্ষার্থীদের সার্বক্ষণিক নজরদারি কথা বলছেন সংশ্লিষ্টরা।

এ বিষয়ে অপরাধ বিশেষজ্ঞরা বলছেন, অনলাইনের এসব প্রতারক চক্রের শেকড় খতিয়ে দেখাসহ অবৈধ বিদেশি নাগরিকদের সুস্পষ্ট পরিসংখ্যান থাকা দরকার। বিভিন্ন ধরনের প্রলোভন দেয়া এসব প্রতারকদের থেকে সতর্ক থাকায় আহবান জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

আরমান কায়সার, বাংলা টিভি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button