দুর্ঘটনাবাংলাদেশ

দেশজুড়ে সড়ক দুর্ঘটনা; চিহ্নিত কারণগুলো দূর করার তাগিদ

দেশব্যাপী বেড়েই চলেছে সড়ক দুর্ঘটনা। যাত্রী সুরক্ষা নিয়ে কাজ করা সংগঠন বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির মতে, চিহ্নিত কারণগুলো দূর করতে না পারলে সড়ক দুর্ঘটনার লাগাম টানা সম্ভব নয়। আর বিআরটিএ বলছে, দুর্ঘটনারোধে আন্তরিকভাবে কাজ করছে সরকার।

এদিকে, গণপরিবহনে গতিসীমা না মানা, ফিটনেসহীন গাড়ি, তদারকির অভাব এবং বেহাল সড়কই দুর্ঘটনার বড় কারণ বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা।

বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির তথ্যমতে, করোনাকালে গণপরিবহন বন্ধের মধ্যেও ঈদুল ফিতরে দেশের সড়ক রেল ও নৌপথে ১৫৬টি দুর্ঘটনায় ১৮৫ জনের প্রাণহানি হয়েছে। এতে আহত হয়েছে আরও ২৮৩ জন। আর, ঈদুল আজহার আগে-পরে ১৩ দিনে সড়ক-রেল-নৌ দুর্ঘটনায় প্রাণ গেছে ৩১৭ জনের।

দুর্ঘটনারোধে সরকারের প্রতিশ্রুতিগুলোর বাস্তবায়ন না হওয়ায় সড়কে হতাহতের সংখ্যা বেড়ে চলছে বলে মনে করেন যাত্রীকল্যাণ সমিতির মহাসচিব মোজাম্মেল হক চৌধুরী। সড়ক দুর্ঘটনা রোধে বিআরটিএর সক্ষমতা বাড়ানোর বিকল্প নেই বলেও মত দেন তিনি।

অন্যদিকে, আংশিক দায় স্বীকার করে, সরকারের একার পক্ষে দুর্ঘটনার লাগাম টানা সম্ভব নয় বলে মন্তব্য করেন, সড়ক পরিবহণ কর্তৃপক্ষের সড়ক-নিরাপত্তা শাখার পরিচালক শেখ মোহাম্মদ মাহবুব-ই-রব্বানী।

সড়কে নিরাপত্তা ও শৃঙ্খলা ফেরাতে সরকার চতুর্থবারের মত জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস পালন করতে যাচ্ছে বলেও জানান, বিআরটিএ’র এ কর্মকর্তা।

হাকিম মোড়ল, বাংলা টিভি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button