অন্যান্যবাংলাদেশ

বেকারদের দ্রুত কাজে না ফেরালে, অপরাধ প্রবণতা বাড়ার শঙ্কা

করোনা মহামারীতে কর্মহীন হয়ে পড়া যুবকদের দ্রুত কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করতে না পারলে সামাজিক অস্থিতিশীলতা ও অপরাধপ্রবণতা বেড়ে যেতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন বিশ্লেষকরা। এমন পরিস্থিতিতে, এ সমস্যা সমাধানে ব্যাপক আকারে সরকারি-বেসরকারি উদ্যোগ প্রয়োজন বলেও অভিমত তাদের।

তবে, বেকার যুবকদের জন্য সরকার স্বল্প সুদে জামানতহীন ঋণসহ নানা পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে বলে জানিয়েছেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল।

২০১৭ সালে পরিচালিত দেশের সর্বশেষ শ্রমশক্তি জরিপ অনুযায়ী, বাংলাদেশে বেকারের সংখ্যা ২৭ লাখ। করোনা মহামারিতে দীর্ঘ হচ্ছে এ সারি। কমেছে নতুন কর্মসংস্থানের সুযোগও। আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থা- আইএলও বলছে, বাংলাদেশি তরুণদের মধ্যে বেকারত্ব বেড়ে দ্বিগুণ হয়েছে।

অন্যদিকে, আইএলও প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, করোনার কারণে ৬ মাসে বেকার হয়েছেন ২৪ দশমিক ৮ শতাংশ যুবক। গেলো বছরে, যা ছিল ১১ দশমিক ৯ শতাংশ।  আইএলও’র হিসেবে, করোনায় বাংলাদেশে ১৬ লাখ ৭৫ হাজার তরুণ-তরুণী কাজ হারিয়েছেন।

তরুণরা বলছেন, কর্মসংস্থানের বিষয়ে সরকারের যেমন দায়িত্ব রয়েছে, তেমনি বেসরকারি খাতের প্রতিষ্ঠানগুলোও এ দায় এড়াতে পারে না।

অপরাধ বিশ্লেষক শেখ হাফিজুর রহমান কার্জন বলেন, বেকার সমস্যা দীর্ঘায়িত হলে বাড়তে পারে অপরাধ প্রবণতা ও সামাজিক অস্থিতিশীলতা। তিনি মনে করেন, প্রাতিষ্ঠানিকভাবে এই বিপুল সংখ্যক বেকারের কর্মসংস্থান সৃষ্টি করতে না পারলে, অপ্রাতিষ্ঠানিক খাতে হলেও তাদের কাজের সুযোগ তৈরি করতে হবে।

আর, করোনায় বেকার হয়ে যাওয়া তরুণদের আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টিতে এরই মধ্যে একটি প্রকল্প হাতে নিয়েছেন বলে জানালেন, যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল।

আসাদ রিয়েল, বাংলা টিভি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button