অন্যান্যবাংলাদেশ

নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টিই ৮ম পঞ্চবার্ষিকীর চ্যালেঞ্জ

দেশকে উন্নয়নশীল তালিকায় নিতে, অর্থনীতি গতিশীল রেখে কর্মসংস্থান সৃষ্টিই অষ্টম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনার মূল চ্যালেঞ্জ হবে বলে মন্তব্য করেছেন, সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের সদস্য ও সিনিয়র সচিব ড. শামসুল আলম।

আর পরিকল্পনা বাস্তবায়নে, ন্যায় বিচার ও আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার পাশাপাশি, সরকারি প্রশাসনের সক্ষমতা বাড়ানোর ওপর জোর দেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।

১ জুলাই থেকে শুরু হয়েছে অষ্টম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনার বাস্তবায়ন। ২০২০-২৫ মেয়াদের এ পাঁচশালা পরিকল্পনার একটি রূপরেখা এরই মধ্যে তৈরি করেছে পরিকল্পনা কমিশনের সাধারণ অর্থনীতি বিভাগ- জিইডি। তবে বিশ্বজুড়ে প্রাণঘাতী কোভিডের আক্রমণ সবকিছু এলোমেলো করে দেয়ায় সংশোধনী আনা হচ্ছে অষ্টম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনায়। সবকিছু ঠিক থাকলে চলতি বছেরের ডিসেম্বরে এর অনুমোদন করানো সম্ভব হবে।

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী বলেন, কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও নারীর ক্ষমতায়ন নিশ্চিত করতে এসএমই খাত অত্যন্ত কার্যকর। তাই, এ খাতের উদ্যোক্তাদের জন্য সহজ শর্তে ঋণ ও প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ নিশ্চিত করার আহ্বান জানান তিনি।

এ সময়, বিচার ব্যবস্থাকে আরও শক্তিশালী করার ওপরও গুরুত্ব দেন ফরহাদ হোসেন। আর, জমি রেজিস্ট্রেশন ও মিউটেশনের কাজ ৮ দিনের মধ্যে শেষ করার উদ্যোগ শিল্প স্থাপনে আগ্রহীদের জন্য একটি বড় সুখবর বলে মত দিলেন, মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।  এতে সুশাসন নিশ্চিত হওয়ার পাশাপাশি,  বিনিয়োগ বাড়বে বলেও মনে করেন তিনি।

করোনার প্রভাবে দেশে দারিদ্র্যের হার কমানো, বিনিয়োগ, শিক্ষা-স্বাস্থ্য, শিশু ও মাতৃমৃত্যুর হার কমানোর মত গুরুত্বপূর্ণ ক্ষেত্রগুলোতে অর্জন ধরে রাখা সম্ভব হয়নি- জানিয়ে, অষ্টম পরিকল্পনায় পরিবর্তিত পরিস্থিতির একটি মূল্যায়ন থাকবে বলে জানালেন, সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের সদস্য ও সিনিয়র সচিব ড. শামসুল আলম।

চলতি পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা বাস্তবায়নে গ্রামীণ অর্থনীতির উন্নয়ন ও শিল্পখাতের অগ্রগতিতে বিশেষ গুরুত্ব দেয়ার কথাও জানান ড. আলম।

৮ম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা: মেয়াদ-জুলাই,২০২০ থেকে জুন,২০২৫ (৫বছর)। লক্ষ্যঃ দক্ষতার উন্নয়ন ও উদ্যোক্তা তৈরিতে সমান গুরুত্ব। ২০২৪-২৫ অর্থবছরে জিডিপি প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা ৮.৫%, ৭৫ লাখ কর্মসংস্থান সৃষ্টি, ৭৭ লাখ কোটি টাকা বিনিয়োগ। যার ৭৬% বেসরকারি খাতের ডেল্টা ২১০০ প্ল্যানের কার্যক্রম শুরু।

এছাড়া, ভিশন-২০৪১ বাস্তবায়নে ৪টি পঞ্চবার্ষিকীর প্রথমটা হলো ৮ম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা। দারিদ্র্যের হার ১২.১৭% এ নামিয়ে আনা।

হাকিম মোড়ল, বাংলা টিভি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button