অন্যান্যবাংলাদেশ

রূপকল্প-২০৪১ বাস্তবায়নে এগোচ্ছে বাংলাদেশ

বাংলাদেশকে স্বল্পোন্নত থেকে মধ্যআয়ের দেশে উন্নীত করতে নানা উন্নয়ন পরিকল্পনা নিয়ে এগোচ্ছে সরকার। যার মূললক্ষ্য ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত বাংলাদেশ গড়ে তোলা।

আর, অষ্টম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনাকে রূপকল্প-২০৪১ বাস্তবায়নের মূল সোপান বলে আঙ্খায়িত করেছেন সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের সদস্য ও সিনিয়র সচিব ড. শামসুল আলম।

২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত বাংলাদেশ গড়ার কর্ম পরিকল্পনার রূপরেখা চূড়ান্ত করেছে সরকার। অষ্টম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে, ‘রূপকল্প-২০৪১ বাস্তবায়নে রূপরেখা: বাংলাদেশের প্রেক্ষিত পরিকল্পনা ২০২১-৪১’- শীর্ষক এই রূপরেখার বাস্তবায়ন শুরু হবে। আর, বাকি তিনটি পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা বাস্তবায়নের মাধ্যমে তা চূড়ান্ত হবে।

সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের সদস্য ও সিনিয়র সচিব ড. শামসুল আলম জানান, প্রেক্ষিত পরিকল্পনায় ১২টি অধ্যায়ের  মধ্যে যেমন শিল্প ও বাণিজ্য, কৃষি, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির মতো বিষয় রয়েছে; তেমনি রয়েছে সুশাসন, মানব উন্নয়ন, জলবায়ূ পরিবর্তন ও পরিবেশের মতো বিষয়গুলোও।

স্বল্পোন্নত দেশ থেকে ২০২৪ সালে উন্নয়নশীল দেশ, আর ২০৩০ সালে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রার (এসডিজি) বাস্তবায়ন পরিমাপ- এই দুটি কারণে দ্বিতীয় প্রেক্ষিত পরিকল্পনা বিশেষ তাৎপর্য বহন করে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

প্রেক্ষিত পরিকল্পনায় গ্রামীণ অর্থনীতি চাঙা ক’রে, গ্রাম-শহরের বৈষম্যসহ সব ধরনের বৈষম্য দূর করার দিকে বিশেষ গুরুত্ব দেয়া হয়েছে বলেও জানান এই পরিকল্পনাবিদ।

সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের প্রেক্ষিত পরিকল্পনাগুলো হলো: ২০৪১ সালে মানুষের প্রত্যাশিত গড় আয়ুষ্কাল ৮০ বছর।২০৩১ সালে মোট দেশজ উৎপাদন (জিডিপি) প্রবৃদ্ধি ৯ শতাংশ। ২০৪১ সালে মোট দেশজ উৎপাদন (জিডিপি)প্রবৃদ্ধি ৯ দশমিক ৯ শতাংশ।

হাকিম মোড়ল, বাংলা টিভি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button