দেশবাংলা

চতুর্থ দফায় ভাসানচরে ২,০১২ রোহিঙ্গা

চতুর্থ দফায় ভাসানচরে স্থানান্তর করা হয়েছে দুই হাজার ১২জন রোহিঙ্গা। সোমবার সকালে এসব রোহিঙ্গাদের নিয়ে চট্টগ্রাম বোট ক্লাব থেকে নোয়াখালীর হাতিয়া উপজেলার ভাসানচরের উদ্দেশ্যে রওনা দেয় পাঁচটি জাহাজ।

স্বেচ্ছায় ভাসানচরে যাওয়ার জন্য গতকাল এসব রোহিঙ্গা উখিয়া-টেকনাফ রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবির থেকে ভাসানচরের উদ্দেশ্যে চট্টগ্রাম আসেন। তবে চতুর্থ দফায় তিন হাজারেরও বেশি রোহিঙ্গা নারী, পুরুষ ও শিশুকে ভাসানচরে স্থানান্তর করা হবে বলে জানা গেছে।

এর আগে তিন দফায় প্রায় ১১ হাজার রোহিঙ্গা শরণার্থীকে ভাসানচরে স্থানান্তর করা হয়েছে। এছাড়াও সমুদ্রপথে অবৈধভাবে মালয়েশিয়া যাওয়ার সময় সাগর থেকে উদ্ধার করে ৩শ ৬ জন রোহিঙ্গা শরণার্থীও ভাসানচরে অবস্থান করছে।

স্বরাষ্ট্র, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের তথ্যানুযায়ী, বলপূর্বক বাস্তুচ্যুত হয়ে মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে আসা রোহিঙ্গার সংখ্যা এখন ১১ লাখ ১৮ হাজার ৫শ ৭৬ জন। এই হিসাব ২০২০ সালের ৫ আগস্ট পর্যন্ত।

২০১৭ সালের ২৫ আগস্টের পর থেকে বাংলাদেশে ৭ লাখ ৪১ হাজার ৮শ ৪১ জন মিয়ানমারের রোহিঙ্গা নাগরিক বাংলাদেশে এসে আশ্রয় নিয়েছে। এদের মধ্যে থেকে সরকার ১ লাখ রোহিঙ্গাকে ভাসানচরে স্থানান্তরের পরিকল্পনা নিয়েছে।

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button