বাংলাদেশঅন্যান্য

বিদেশফেরত প্রবাসীদের টিকা প্রাপ্তিতে জটিলতা

সরকারি নিয়ম অনুযায়ী করোনা টিকার জন্য জাতীয় পরিচয়পত্র বাধ্যতামূলক হওয়ায়, ভ্যাকসিন পেতে হিমসিম খাচ্ছেন দেশে ফেরত অনেক প্রবাসী। তাই, শিথিল হয়ে আসা শ্রমবাজারগুলো আবারো অনিশ্চিয়তার মুখে পড়তে যাচ্ছে।

প্রবাসীরা বলছেন, অন্তত তাদের দুর্দশার কথা বিবেচনা করে, পাসপোর্ট দিয়ে টিকা নিবন্ধনের ব্যবস্থা করা হোক। নতুবা, দ্রুত সময়ের মধ্যে এনআইডি তৈরির উদ্যোগ নেয়ার দাবি তাদের। তারা বলেন, আমরা বাংলাদেশের নাগরিক হয়েও জাতীয় পরিচয়পত্র পেতে হয়রানির স্বীকার হচ্ছি। কেন?

স্বাধীনতার ৫০ বছরে সোনার বাংলা। ডিজিটাল হয়েছে দেশের সার্বিক ব্যবস্থাপনা। দেশ এখন উন্নয়নশীল রাষ্ট্রের জোড়ালো দাবিদারও বটে। তারপরও ভুক্তভোগীর এমন প্রশ্নের উত্তর দিতে অপারগ সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলো। করোনা টিকা আসার পর দেশব্যাপী প্রয়োগ শুরু হয়েছে। তবে টিকা পাচ্ছেন না বিদেশ ফেরত লাখো প্রবাসী।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়ম অনুযায়ী টিকা পেতে জাতীয় পরিচয়পত্র বাধ্যতামুলক করা হয়েছে। করোনাকালে দেশে ফেরা প্রবাসীদের সবার পাসপোর্ট থাকলেও বেশিরভাগেরই নেই এনআইডি কার্ড। এ অবস্থায় ভ্যাকসিনের নিবন্ধনে বিড়ম্বনায় পড়েছেন তারা।

প্রবাস ফেরত ভুক্তভোগীরা বলছেন, নতুন করে জাতীয় পরিচয়পত্র পেতে ৩ থেকে ৪ মাস সময় চাইছে এনআইডি কর্তৃপক্ষ। এ পরিস্থিতিতে কর্মস্থলের দেশগুলোতে ফিরতে আবারো অনিশ্চয়তার মুখে প্রবাসীরা।

যদিও বেশ কয়েকটি দেশ এরইমধ্যে টিকা নেয়া শ্রমিকদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে নিজ কর্মে ফেরত নেবে বলে আশ্বস্ত করেছে। তবে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় থেকে, প্রবাসীদের টিকার বিষয়ে এখনো কোন পদক্ষেপ নেয়া হয়নি।

শাহরিয়ার রাজ, বাংলা টিভি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button