বানিজ্য সংবাদজনদুর্ভোগবাংলাদেশ

রমজানের আগে উর্ধ্বমুখী নিত্যপণ্যের বাজার

আসন্ন রমজান আর করোনা করোনার প্রাদুর্ভাব বেড়ে যাওয়ায় বাজারে বেড়েছে অধিকাংশ নিত্যপণ্যের দর।ছোলা,সয়াবিন তে্ল,ঘি,গুড়ো দুধসহ বেশ কিছু পণ্য বিক্রি হচ্ছে বাড়তি দামে। আর অতি প্রয়োজনীয় এসব পণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণে বাজার মনিটরিংয়ের দাবি সাধারণ ক্রেতাদের।

এমনিতে রমজান আসলেই বাজারে বেড়ে যায় প্রয়োজনীয় বেশ কিছু পণ্যের দাম। তার ওপর গেল কয়েকদিনে মহামারি করোনার প্রাদুর্ভাব বেড়ে যাবার অজুহাতে বাড়তি  দামে বিক্রি হচ্ছে বেশ কিছু পণ্য।

বিক্রেতারা জানান ছোলা, ঘি, গুড়ো দুধ, চিড়া, সব ধরনের ডাল বিক্রি হচ্ছে বাড়তি দামেই। আর মূল্য নির্ধারণ করে দেয়ার পরেও সয়াবিন তেল নিয়ে চলছে নানা তালবাহানা।

রমজান আসলেই বেড়ে যায় নিত্যপণ্যের চাহিদা, তাই বাজার নিয়ন্ত্রনে সরকারের হস্তক্ষেপ চেয়েছেন সাধারণ ক্রেতারা।

আমদানি হওয়া ভারতীয় চালের দাম কেজিতে ১ থেকে ২ টাকা কমলেও তার কোন প্রভাব পড়েনি দেশি চালের দামে,বিক্রি হচ্ছে আগের দামেই।

এদিকে, কিছুটা কমে কেজি প্রতি ব্রয়লার মুরগির বিক্রি হচ্ছে ১৬০ টাকা।লেয়ার ২০০ থেকে ২২০ টাকা। আর পাকিস্তানি মুরগি বিক্রি হচ্ছে ২৪০ থেকে ২৬০ টাকা কেজি দরে। তবে বাজারে,মাছ মাংস আর সবজি বিক্রি হচ্ছে আগের দামেই।

বাংলাটিভি/শহীদ

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button