বাংলাদেশজনদুর্ভোগ

করোনা টেস্টের চাপ বাড়ছে হাসপাতালে

করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় উপসর্গ নিয়ে পরীক্ষা করার চাপ বেড়েছে রাজধানীর হাসপাতালগুলোতে। রোগীর তুলনায় পরীক্ষা হচ্ছে নগণ্য। নিবন্ধন করেও নমুনা দিতে ঘণ্টার পর ঘণ্টা লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতে হয়। অনেককেই আবার ফিরে যেতে হচ্ছে। দ্রুত শনাক্তের ক্ষেত্রে সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা এবং অ্যান্টিজেন টেষ্টের তাগিদ দিয়েছেন জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা।

সকাল ৮টায় রাজধানীর মুগদা জেনারেল হাসপাতাল গেটের এই দীর্ঘ লাইন। নারী-পুরুষ এক কাতারে। কেউ দাঁড়িয়ে আছেন, কেউবা বসে অপেক্ষায়, করোনা টেস্টের টিকেটের আশায়।

 নমুনা পরীক্ষা দিতে আসা লাইনেও যেন স্বাস্থ্যবিধি মানার বালাই নেই। এ অবস্থায় যিনি করোনা আক্রান্ত নন, তিনিও যে এখান থেকেই ভাইরাসটি বহন করে নিয়ে যাবেন না এমন নিশ্চয়তা নেই।

 নমুনা টেষ্টের জন্য সরকারী ওয়েবসাইট থেকে রেজিস্ট্রেশন করার নিয়ম রয়েছে।  যদিও সে ওয়েবসাইটে মাত্র ৫ মিনিটের জন্য খোলা হয়। এই স্বল্প সময়ের মধ্যে হাজার হাজার আবেদন করা হলেও, মাত্র ১শ জনের বেশি আবেদন গৃহিত হয় না। আবার করোনার লক্ষণ নিয়ে হাসপাতালে আগতদের অনেকের, উপসর্গ থাকার পরো নমুনা রেজিষ্ট্রেশন করতে না পারায় টেষ্ট ছাড়াই ফেরত যেতে হচ্ছে। সাধারণ মানুষের দুর্ভোগ কমাতে, দ্রুত অ্যান্টিজেন টেষ্টের তাগিদ জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের।

দিন দিন উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে করোনার সংক্রমণ। এছাড়া করোনারোগি ছাড়াও দুর্ঘটনায় হতাহত কিংবা অন্য কোন জটিল রোগের চিকিৎসা নেবার আগেও অধিকাংশ ক্ষেত্রেই বাধ্যতামুলকভাবে করোনার নমুনা পরীক্ষা করতে হচ্ছে। তাই দ্রুত করোনা পরীক্ষা নিশ্চিতের তাগিদ সাধারণ মানুষের।

বাংলাটিভি/শহীদ

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button