দেশবাংলাজনদুর্ভোগ

দেশের দক্ষিনাঞ্চলে হঠাৎ করেই বেড়ে গেছে ডায়রিয়ার প্রকোপ

দেশের দক্ষিণ অঞ্চলে বিভিন্ন জেলায় হঠাৎ করে বেড়ে গেছে ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা। সদর হাসপাতালসহ বিভিন্ন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেগুলোতে, ধারণ ক্ষমতার চেয়ে অধিক ডায়রিয়া রোগী ভর্তি হওয়ায়, বিছানা না পেয়ে মেঝেতে এবং বারান্দায় চিকিৎসা নিচ্ছেন শতশত রোগী। হাসপাতালের পরিবেশও স্বাস্থ্যকর নয় বলে অভিযোগ, রোগী ও স্বজনদের।

ভোলায় হঠাৎ করেই ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা বেড়ে গেছে। জেলা সদরসহ বিভিন্ন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে, প্রতিদিনই ধারণ ক্ষমতার চেয়ে অধিক রোগী ভর্তি হওয়ায়, অধিকাংশ রোগীই বেড না পেয়ে, হাসপাতালের মেঝেতে চিকিৎসা নিচ্ছেন শতশত রোগী।রোগীদের চিকিৎসা দিতে হিমশিম খাচ্ছেন চিকিৎসক ও নার্সরা।

বিশুদ্ধ পানির অভাব এবং প্রচন্ড গরমের কারনে ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা বাড়ছে বলে জানান সিভিল সার্জন।

বরিশালে বেড়েছে ডায়রিয়ার প্রকোপ। গেল ১৫ দিনে বরিশাল জেনারেল হাসপাতালে ডায়রিয়ায আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসা নিয়েছেন, প্রায় এক হাজার রোগী। ওষুধ ও শয্যা সংকটে ব্যাহত হচ্ছে চিকিৎসা সেবা। হাসপাতালের পরিবেশও স্বাস্থ্যকর নয় বলে অভিযোগ, রোগী ও স্বজনদের।

রোগীর চাপ সামাল দিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে বলে জানান চিকিৎসকরা। হঠাৎ রোগীর চাপ বেড়ে যাওয়ায়, সেবা কারযক্রম ব্যাহত হচ্ছে বলে জানান, সিভিল সার্জন।

পটুয়াখালীতে আশঙ্কাজনক হারে বেড়েছে ডায়রিয়ার প্রকোপ।পর্যাপ্ত শয্যা না থাকায় মেঝে,করিডোর এমনকি বারান্দায় ঠাঁই নিতে হচ্ছে অসংখ্য রোগীর। সদর উপজেলাসহ জেলার সবগুলো উপজেলায়, পর্যাপ্ত খাবার স্যালাইনসহ চিকিৎসা সামগ্রী রয়েছে বলে জানান, সংশ্লিষ্টরা।

গেল এক সপ্তাহে জেলায় ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে ৪০জন। আর বিভিন্ন হাসাপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে, প্রায় দেড় হাজার রোগী। প্রতিদিনই শতাধিক নতুন রোগী ভর্তি হচ্ছেন।

ডেস্ক রিপোর্ট/ বাংলা টিভি ।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button