দেশবাংলা

মেঘনা ও তেঁতুলিয়া নদীতে জেলেদের জালে মিলছেনা কাঙ্খিত ইলিশ

র্দীর্ঘ দুইমাস পর ভোলার মেঘনা ও তেঁতুলিয়া নদীতে জেলেদের জালে মিলছেনা কাঙ্খিত ইলিশ।অন্যদিকে মৎস্য ব্যবসায়ীরা বলছেন নিষেধাজ্ঞার সময় ঢাকা,বরিশাল,খুলনাসহ বিভিন্ন জেলার পাইকারদের কাছ থেকে অগ্রীম টাকা এনে দাদন দিয়েছিলেন তারা।জেলেরা খালি হাতে ফেরায় চরম হতাশায় রয়েছেন তারাও।

গত পয়লা মার্চ থেকে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত,ভোলার ১৯০ কিলোমিটার নদীতে ইলিশ শিকারের নিষেধাজ্ঞা দেয় সরকার। সেই নিষেধাজ্ঞা শেষে পয়লা মে মধ্যরাতে দুই মাসের ধার-দেনা ও ঋনের বোঝা মাথায় নিয়ে, ভোলার মেঘনা ও তেঁতুলিয়া নদীতে মাছ শিকারে যান জেলেরা।কিন্তু মধ্য রাত থেকে নদীতে জাল ফেলে কাঙ্খিত ইলিশের দেখা না পাওয়ায় হতাশ জেলেরা।ফলে ধার-দেনা,মহাজনের কাছ থেকে দাদন ও এনজিওর কিস্তি পরিশোধের চিন্তায় দিশেহারা জেলেরা।

অন্যদিকে আড়ৎদাররা বলছেন,নিষেধাজ্ঞার সময় ঢাকা,বরিশাল,খুলনাসহ বিভিন্ন জেলার পাইকারদের কাছ থেকে অগ্রীম টাকা নিয়ে,জেলেদের দাদন দিয়েছেন। কিন্তু জেলেরা নদীতে মাছ না পেয়ে হতাশ হয়ে ফিরছেন তারা।ফলে,পাইকারদের কিভাবে মাছ দিবেন তা নিয়ে চিন্তিত ব্যবসায়ীরা।

ইলিশ সংঙ্কটের কথা স্বীকার করে বরিশাল বিভাগীয় মৎস্য অফিসের সহকারী পরিচালক জানান,আগামী জুন-জুলাইয়ের দিকে ইলিশের পরিমাণ বৃদ্ধি পাবে।

ডেস্ক রিপোর্ট/বাংলা টিভি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button