দেশবাংলাঅপরাধআইন-বিচার

চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও খুলনায় চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে দুর্ণীতির অভিযোগ

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার মোবারকপুর ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে, অসহায়দের জন্য প্রধানমন্ত্রীর দেয়া উপহার আত্মসাতের অভিযোগসহ,নানারকম  দূর্নীতির অভিযোগ উঠেছে।তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার।এদিকে,খুলনার তেরোখাদা উপজেলার বারাসাত ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ এনে স্থানীয় ইউপি সদস্যরা,জেলা প্রশাসক বরাবর লিখিত অভিযোগ করলে,তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস জেলা প্রশাসনের।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার মোবারকপুর ইউনিয়নে,প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে নগদ টাকা দেয়ার জন্য, প্রায় ৩ হাজার লোকের নামের তালিকা করা হলেও,অনেকেই কোন সহায়তা পায়নি।আবার নানা অযুহাতে টাকা কেটে নেয়ার অভিযোগও রয়েছে। সুবিধাভোগীদের এসব টাকা,ইউপি চেয়ারম্যান তহিদুর রহমান মিয়া আত্মসাৎ করেছেন এমন অভিযোগ এনে,জেলা প্রশাসক বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়ে ব্যবস্থা নেয়ার দাবী জানিয়েছেন,ভুক্তভোগীরা। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার কথা বলেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।

এদিকে, খুলনার তেরোখাদা উপজেলার বারাসাত ইউপি চেয়ারম্যান, কে এম আলমগীর হোসেনের  বিরুদ্ধে, গত ৫ বছর ধরে ইউপি সদস্যদের অবগত না করে, বাৎসরিক বরাদ্দ,পানি উন্নয়ন বোর্ডের বরাদ্দ,টি আর,কাবিখা ও জেলা পরিষদের ১% বরাদ্দের টাকা আত্মসাত ছাড়াও, ভিজিডি কার্ডের গ্রাহকদের কাছ থেকে প্রায় ২০ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ রয়েছে। এ ব্যাপারে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে জেলা প্রশাসক বরাবর লিখিত অভিযোগ কোরে, ব্যবস্থা নেয়ার দাবী জানিয়েছেন ৮ ইউপি সদস্য ।

এদিকে, সব অভিযোগ অস্বীকার করে তার বিরুদ্ধে যড়যন্ত্র করা হচ্ছে বলে জানান, অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারম্যান তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক। ইউপি চেয়ারম্যানদের বিরুদ্ধে দূর্ণীতি- অনিয়মের বিষয়ে তদন্তের মাধ্যমে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়ার দাবী ভূক্তভোগী জনগণ ও ইউপি সদস্যদের।

ডেস্ক রিপোর্ট/বাংলা টিভি/এস

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button