ঢালিউডবিনোদন

ভালোবাসায় সিক্ত হলেন সালমান শাহ

সালমান শাহ, যাকে বলে ধূমকেতুর আবির্ভাব! এলেন,দেখলেন,জয় করলেন!  নব্বই দশকের গোড়ার দিকে ঠিক রূপকথার মতই দেশের চলচ্চিত্রে আগমন-প্রত্যাগমন ঘটান সালমান শাহ্। হুট করে এসেই জয় করে নিয়েছিলেন দর্শক মন। মাত্র চার বছরে ২৭টি ছবিতে  অভিনয় করেছিলেন সালমান শাহ। প্রায় সবগুলো সিনেমাই ছিল সুপারহিট। গেল বৃহষ্পতিবার ছিল তাঁর ২২তম মৃত্যুবার্ষিকী, ১৯৯৬ সালের ৬ সেপ্টেম্বর রহস্যজনকভাবে অকাল প্রয়াত হন এই চিত্রতারকা। তাঁর সংক্ষিপ্ত জীবনী তুলে ধরছেন আসাদ রিয়েল।

বাংলা চলচ্চিত্রের সবচেয়ে স্টাইলিস্ট নায়কের নাম সালমান শাহ। ১৯৭১ সালে ১৯ সেপ্টেম্বর সিলেটের জাকিগঞ্জে তার জন্ম, আসল নাম শাহরিয়ার চৌধুরী ইমন। বাবা কমর উদ্দিন চৌধুরী ও মা নীলা চৌধুরীর বড় ছেলে ছিলেন তিনি।

ইত্যাদির একটি গানে তার মায়ের সঙ্গে মডেল হিসেবে পর্দায় প্রথম আবির্ভাব। ১৯৮৫ সালে বিটিভির আকাশ ছোঁয়া নাটক দিয়ে অভিনয়ে যাত্রা শুরু। এরপর কাজ করেন কয়েকটি বিজ্ঞাপনসহ বেশকিছু একক ও ধারাবাহিক নাটকে।

১৯৯৩ সালে সোহানুর রহমান সোহানের কেয়ামত থেকে কেয়ামত ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে চলচ্চিত্রে অভিষেক। ইমন নাম পরিবর্তন ক’রে রাখা হয় সালমান শাহ। প্রথম ছবিতেই বাজিমাত করেন তিনি।

মাত্র চার বছরের অভিনয় জীবনে ২৭টি ছবিতে অভিনয় করেছেন সালমান শাহ- যার প্রায় সবগুলোই ছিল সুপারহিট। এর মধ্যে ১৪টিতে তার নায়িকা ছিলেন শাবনূর। ঢাকাই সিনেমায় তার জনপ্রিয়তার রেকর্ড আজও অক্ষুন্ন।

শুধু অভিনয় নয়, গানের প্রতিও ছিল তার অন্যরকম ভালো লাগা। বাজাতে পারতেন গিটারও।  জনপ্রিয় হওয়ার পর ছোট-বড় দুই পর্দায়ই গান করেছিলেন সালমান শাহ্। নিজে অভিনীত ‘প্রেমযুদ্ধ’ ছবিতে তার কণ্ঠ দেয়া একটি গানও বেশ জনপ্রিয়তা পায়।

ফ্যাশনে সব সময়ই, সময়ের চেয়েও এগিয়ে থাকতেন সালমান শাহ। আজও তার স্টাইল অনুসরণ করেন, অনেক অভিনেতা।

১৯৯৬ সালের ৬ সেপ্টেম্বর রহস্যজনকভাবে অকালে মৃত্যুবরণ করেন বাংলা চলচ্চিত্রের এই উজ্জ্বল নক্ষত্র। যার শূন্যতা পূরণ হয়নি দুই দশকেরও বেশি সময়ে। কোটি ভক্তের কাছে আজও সালমান শাহ যেন একটি আবেগ আর ভালোবাসার নাম।

আসাদ রিয়েল, বাংলা টিভি, ঢাকা

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close