দুর্ঘটনাবাংলাদেশ

ফতুল্লায় আগুনে একই পরিবারের ৯ জন দগ্ধ: বার্ন ইউনিটে ভর্তি

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় হকবাজার এলাকার একটি বাসার আগুন লেগে একই পরিবারের ৯ জন দগ্ধ হয়েছেন। তারা হলেন, মা ছায়া রানী (৬০), শ্রীনাথ চন্দ্র বর্মন (৩৬), স্ত্রী অর্চনা রানী (৩০), মেয়ে অনামিকা (১৫), ছেলে অর্পিদ চন্দ্র বর্মন(৯), বোন সুনিত্রা রানী (২৭), ভাতিজা প্রমিদ চন্দ্র বর্মন (১৪), শাওন চন্দ্র বর্মন (১০), বোন জামাই নারায়ন চন্দ্র বর্মন (৪০)।

দগ্ধ শ্রীনাথ চন্দ্র জানান, ভোর সাড়ে ৫টার দিকে মোবাইলের অ্যালার্ম শুনে তিনি ঘুম থেকে ওঠে বাতির সুইচ দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে বাসার ভেতর আগুন ছড়িয়ে পড়ে। এতে ওই রুমে এবং পাশের রুমে ঘুমিয়ে থাকা নয়জন দগ্ধ হন। পরে তাঁদের চিৎকারে আশপাশের ভাড়াটিয়ারা এসে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল সূত্রে যানা যায়, তাঁদের শরীরে ৩০ থেকে ৮০ শতাংশ দগ্ধ হয়েছে। সবাইকেই বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে।

এদিকে ফতুল্লা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এস এম মঞ্জুর কাদের জানান, শিবু মার্কেট এলাকার হকবাজারে চারতলা ভবনের তিনতলায় গ্যাসের চুলার আগুনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এই পরিবারের সদস্যরা পোশাক কারখানার শ্রমিক। ওই বাড়িতে তাঁরা ভাড়া থাকেন। ভোরে রান্নার জন্য গ্যাসের চুলায় আগুন জ্বালালে সেই আগুন ঘরে ছড়িয়ে যায়। এতে ঘরের সবাই দগ্ধ হন।

বাংলাটিভি/মাসুদ সুমন

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close