আওয়ামী লীগজাতীয় নির্বাচননির্বাচনবাংলাদেশ

আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোটের নিরঙ্কুশ বিজয়

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করে টানা তৃতয়ীবারের মতো সরকার গঠন করতে যাচ্ছে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট। এখন পর্যন্ত বেসরকারি ভাবে পাওয়া ফলাফলের ভিত্তিতে ২৯৬টি আসনের মধ্যে মহাজোটের প্রার্থীরা ২৬৬টি আসনে জয় পেয়েছে। আর বাকী আসনে ২১টিতে জয় পেয়েছে জাতীয় পার্টি, ঐক্যফ্রন্ট পেয়েছে ৭টি এবং অন্যান্য প্রার্থীরা পেয়েছেন ২টি আসন।

এর মধ্যে গোপালগঞ্জ-৩ আসনে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন শেখ হাসিনা। তার প্রাপ্ত ভোট দুই লাখ ২৯ হাজার ৫৩৯ ভোট। শেখ হাসিনার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ধানের শীষের প্রার্থী পেয়েছেন ১২৩ ভোট। এদিকে, রংপুর-৬ আসনে শিরীন শারমিন চৌধুরী, নড়াইল-২ আসনে মাশরাফি বিন মোর্ত্তজা, ব্রাক্ষ্মণবাড়িয়া -৪ আসনে আনিসুল হক, যশোর-৬ ইসমত আরা সাদেক, নাটোর-৩ আসনে জুনাইদ আহমেদ, কুষ্টিয়া-২ আসনে হাসানুল হক ইনু, কুষ্টিয়া- ৩ আসনে মাহবুব-উল আলম হানিফ, ঝালকাটি-২ আসনে আমির হোসেন আমু, সুনামগঞ্জ-২ জয়া সেনগুপ্ত বেসরকারি ভাবে জয় পেয়েছে। অন্যদিকে, বগুড়া ৬ আসনে জয় পেয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

এখন পর্যন্ত প্রাপ্ত ফলাফলে রংপুর-৩ আসনে ৪০টি কেন্দ্রে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ ২৬ হাজার ৩৫৬ ভোট পেয়েছেন।  তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির রিটা রহমান পেয়েছেন ১১ হাজার ১৬৯ ভোট।

জয়পুরহাট-২ আসনের ১০টি কেন্দ্রে আওয়ামী লীগের আবু সাইদ আল মাহমুদ স্বপন পেয়েছেন ২৩ হাজার ৬৯০টি ভোট এবং তার প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির এ ই এম খলিলুর রহমান পেয়েছেন ২ হাজার ৪১৪ ভোট।

ঢাকা-৬ আসনে ২টি কেন্দ্রে জাতীয় পার্টির কাজী ফিরোজ রশিদ পেয়েছেন ২ হাজার ৩৭৭টি ভোট।  তার প্রতিদ্বন্দ্বী গণফোরামের সুব্রত চৌধুরী পেয়েছেন ২ হাজার ৭২ ভোট।

ঢাকা-১৩ আসনে আওয়ামী লীগের সাদেক খান পেয়েছেন ১৬ হাজার ২৩৬ ভোট।  তার প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির আব্দুস সালাম পেয়েছেন ৬ হাজার ৪২০ ভোট।

বগুড়া-৬ আসনে ৩টি কেন্দ্রে বিএনপি মহাসচিব  ফখরুল ইসলাম আলমগীর ৫ হাজার ৪২৪ ভোট পেয়েছে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী মোহাম্মদ নুরুল ইসলাম ওমর লাঙ্গল প্রতীক নিয়ে পেয়েছে ৫৫৯ ভোট।

খুলনা-২ আসনে আওয়ামী লীগের শেখ সালাহউদ্দিন পেয়েছেন ১৭ হাজার ৩৯১ ভোট।  তার প্রতিদ্বন্দী বিএনপির নজরুল ইসলাম মঞ্জু পেয়েছেন ৪ হাজার ৬৬৬ ভোট।

কুষ্টিয়া-১ আসনে আওয়ামী লীগের সারওয়ার জাহান ২ লাখ ৭৬ হাজার ৯৭৮ ভোট পেয়েছেন।  তার প্রতিদ্বন্দী বিএনপির রেজা আহম্মেদ পেয়েছেন ৩ হাজার ৪২০ ভোট। সাতক্ষীরা-২ আসনে আওয়ামী লীগের মীর মোশতাক আহমেদ রবি পেয়েছেন ৬ হাজার ৮৫৬ ভোট।

এদিকে, রবিবার রাতে রাজধানীর ধানমণ্ডিতে দলীয় সভাপতির কার্যালয়ে আওয়ামী লীগের বিজয়কে অভূতপূর্ব বলে মন্তব্য করেছেন দলটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক। এ সময়, জনগণের ভোটকে প্রত্যাখ্যান করা উচিত নয় উল্লেখ করে জাহাঙ্গীর কবীর নানক বলেন, ‘জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট অভিযোগের রাজনীতি থেকে বেরিয়ে আসতে পারেনি।’

প্রসঙ্গত, এবার একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৩০০ আসনে মোট ভোটার ছিলো, ১০ কোটি ৪২ লাখ ৩৮ হাজার। নির্বাচনে ৪০ হাজার ১৮৩টি ভোট কেন্দ্র ও ২ লাখ ৬ হাজার ৪৭৭টি ভোটকক্ষ ছিলো।

এই নির্বাচনে নিবন্ধিত ৩৯টি দলই তাদের পছন্দের প্রার্থীকে মনোনয়ন দেয়। দীর্ঘ ১০ বছর পর মুখোমুখি হয়, রাজনীতিতে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ ও বিএনপি। দ’টি দলই জোটবদ্ধভাবে ভোটে অংশ নিয়েছে। একক দল হিসেবে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ (হাতপাখা) সব থেকে বেশি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে। দেশের ৩০০ আসনের মধ্যে দলটির ২৯২ জন প্রার্থী রয়েছেন বলে জানা গেছে। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন ১৮০০’র বেশি প্রার্থী। এর মধ্যে ৫০ জনের মতো স্বতন্ত্র প্রার্থী, বাকিরা বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের।

একজন প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর মৃত্যুর কারণে গাইবান্ধা- ৩ আসনে ভোট স্থগিত করা হয়। এই আসনে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে ২৭শে জানুয়ারি। এ আসনে ভোটারের সংখ্যা চার লাখের বেশি।

বাংলাটিভি/পাইক

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close