বাংলাদেশবিএনপিরাজনীতি

ডাকসু নির্বাচন নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ:বিএনপির মহাসচিব

রবিবার দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে কৃষক দলের নবগঠিত আহ্বায়ক কোমিটির এক সভায় ডাকসু নির্বাচন নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। একই সাথে এ নির্বাচনে ছাত্রদলের অংশগ্রহণকে তিনি স্বাগত জানান তিনি।

এ সময় তিনি বলেন, আগামীকাল সোমবার ডাকসু নির্বাচন। এই নির্বাচনে ছাত্রদল অংশগ্রহণ করেছে, আমি এটাকে স্বাগত জানাই। কারণ,২৮ বছর ডাকসু নির্বাচন হয়নি। আরেকটি ক্যান্সারের সৃষ্টি করা হয়েছিল। আমাদের দেশে যে রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ গড়ে ওঠার কারখানা, সেটি বন্ধ করে দেয়া হয়েছিল।

এই নির্বাচনের মধ্যদিয়ে ছাত্রসমাজে কৃষক দলের উদ্দেশে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘দেশে বর্তমানে ভয়াবহ সঙ্কট চলছে। এ সঙ্কট শুধু বিএনপির একার নয়,গোটা জাতির। গণতন্ত্র ও মানবিক রাষ্ট্র সবকিছু  বর্তমান সরকার ধ্বংস করে দিচ্ছে।

এতে, খালেদা জিয়ার অসুস্থতার প্রসঙ্গে ফখরুল বলেন, খালেদা জিয়া এখন খুবই অসুস্থ। বসতে পারেন না। তাকে বিছানা থেকে তুলতে সাহায্যকারীর দরকার হয়। তাকে কোনো চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে না। এটা মানবাধিকারের লঙ্ঘন।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ ও জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য আমরা জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠন করে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিয়েছিলাম। কিন্তু, আওয়ামী লীগ একটি ক্রিমিনাল মাইন্ড নিয়ে গোটা নির্বাচন ব্যবস্থাকে ধ্বংস করেছে।’নির্বাচন কমিশনের সমালোচনা করে তিনি আর ও বলেন, ‘আমরা নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন গঠনের দাবি করলেও মানা হয়নি।

 আওয়ামী লীগ তাদের দল নিয়ে নির্বাচন কমিশন গঠন করে। সংসদ নির্বাচনে তারা সম্পূর্ণ আওয়ামী লীগের নিয়ন্ত্রণে কাজ করেছে। নির্বাচনে তারা যা করেছে, নজিরবিহীন অবস্থা ছিল। বর্তমান কমিশনই নির্বাচন ব্যবস্থাকে একেবারে ধ্বংস করে ফেলে। এখন পত্রপত্রিকায় দেখতে পাই, কেউ ভোট দিতে যায় না নির্বাচন কেন্দ্রে। উপজেলা নির্বাচনে ৭০-৮০ প্রার্থীকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিজয়ী ঘোষণা করা হয়েছে।’‘আওয়ামী লীগ সব সময় ফ্যাসিবাদী-কর্তৃত্ববাদী শাসন ব্যবস্থায় বিশ্বাস করে। তারা ভোটারদের আস্থা-বিশ্বাস নষ্ট করে ফেলেছে। ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে তারা ভোট ডাকাতি শেখাচ্ছে।

নেতা কর্মিদের উদ্দেশে  মির্জা ফখরুল বলেন, ‘এখন আমাদের একটাই   দায়িত্ব, বেগম জিয়াকে মুক্ত করা। আমাদের নেতা তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনা বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান ও কৃষক দলের আহ্বায়ক শামসুজ্জামান দুদুর সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন  সদস্য সচিব কৃষিবিদ হাসান জাফির তুহিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে কৃষক দলের যুগ্ম-আহ্বায়ক তকদির হোসেন মোহাম্মদ জসিম, নাজিম উদ্দিন মাস্টার, জামাল উদ্দিন খান মিলন, সৈয়দ মেহেদী আহমেদ রুমী, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য জিয়াউল হায়দার পলাশ, এসকে সাদি,

বাংলাটিভি/ফাতেমা

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close