বাংলাদেশ

বাঁচানো গেল না মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাতকে

ফেনীর সোনা গাজীতে অগ্নিদগ্ধ আলিম পরীক্ষার্থী মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি মারা গেছেন। বুধবার (১০ এপ্রিল) রাত ৯ টার দিকে মেডিকেল বোর্ড রাফির মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে। এ দিকে সকালে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের শেখ হাসিনা বার্ন ইনস্টিটিউটের সম্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেন জানিয়েছিলেন,

‘নুসরাতের শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত রয়েছে। আগের থেকে খুব বেশি উন্নতিও হয়নি আবার খুব খারাপও না। এখন আমরা যেটা ভাবছি, এখন যে অবস্থায় আছে, এর থেকে একটু উন্নতি হলেই, তখন রাফির পরবর্তী চিকিৎসার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া যাবে।’

এদিকে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা রয়েছে নুসরাতকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরের হাসপাতালে নেয়ার। চিকিৎসকরা যদি পরামর্শ দেয়, তবে তাৎক্ষনিক উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে নেয়া হবে। নুসরাতের শরীরের ৮০ ভাগ পুড়ে গেছে। যা নিয়ে দেশ ব্যাপি আলোচনা-সমালোচনার ঝড় বইছে।

উল্লেখ্য, গত ২৭ মার্চ মাদরাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ-দৌলাহ ওই ছাত্রীকে যৌন হয়রানির চেষ্টা করেন- এমন অভিযোগ এনে ছাত্রীর মা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে সোনাগাজী মডেল থানায় মামলা করেন। মামলার পর পুলিশ তাৎক্ষণিক অধ্যক্ষকে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠায়।ওই ঘটনায় গত শনিবার সকালে আলিম পরীক্ষা দিতে সোনাগাজী ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসায় যায় নুসরাত জাহান রাফি।

পরে সেখান থেকে তাকে ছাদে ডেকে নিয়ে যাওয়া হয়। এর পর চারজন বোরকা পরিহিত তাকে অধ্যক্ষ সিরাজউদ্দৌলার বিরুদ্ধে মামলা ও অভিযোগ তুলে নিতে চাপ দেয়। রাফি অস্বীকৃতি জানালে তারা তার গায়ে আগুন দিয়ে পালিয়ে যায়।

আগুনে পুড়িয়ে হত্যাচেষ্টার মামলায় এক নারীসহ ৯ জনকে আটক করা হয়েছে ও ৪ জনকে রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ। আজ প্রধান অভিযুক্ত মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদৌল্লাহ’র রিমান্ড শুনানি হওয়ার কথা রয়েছে।

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close