অন্যান্যদেশবাংলা

শেরেবাংলার ৫৭তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

উপমহাদেশের প্রখ্যাত রাজনীতিবিদ ও বাঙালি জাতীয়তাবাদের অন্যতম প্রবক্তা শেরেবাংলা আবুল কাশেম ফজলুল হকের ৫৭তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ। ১৯৬২ সালের আজকের দিনে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যান তিনি। 

এ কে ফজলুল হক পাকিস্তান কেন্দ্রীয় সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, পূর্ব পাকিস্তানের গভর্নর, যুক্তফ্রন্ট সরকারের মুখ্যমন্ত্রী, অবিভক্ত বাংলার মুখ্যমন্ত্রী, কলকাতা সিটি করপোরেশনের প্রথম মুসলিম মেয়র, আইনসভার সদস্যসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেন।ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন তিনি।

নেতা হিসেবে শেরেবাংলা ছিলেন সাহসী, জনদরদি ও অসাধারণ বাগ্মিতার অধিকারী। তিনি ছিলেন জোতদার-মহাজনদের নির্মম শোষণ-অত্যাচারে জর্জরিত তদানীন্তন বাংলার কৃষক-প্রজা, দরিদ্র ও মেহনতি মানুষের অকৃত্রিম বন্ধু। সাধারণ মানুষের কল্যাণ সাধনই ছিল তার রাজনীতির মূল দর্শন।

তিনি ১৯৪০ সালে ঐতিহাসিক লাহোর প্রস্তাব উত্থাপন করেন। ২১ দফা দাবিরও প্রণেতা ছিলেন তিনি। প্রজাস্বত্ব কায়েম ও মহাজনি প্রথা উচ্ছেদের মাধ্যমে বাঙালি সমাজে সামন্ত যুগের পতনঘণ্টা বাজানোর ক্ষেত্রে তার অনন্যসাধারণ অবদান ছিল। ঋণসালিশি বোর্ড গঠন করে ঋণে জর্জরিত কৃষক সমাজকে চরম ভোগান্তির হাত থেকে রক্ষা করেন তিনি। শিক্ষানুরাগী ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির জীবন্ত প্রতীক হিসেবেও ইতিহাসের পাতায় তার রয়েছে গুরুত্বপূর্ণ স্থান।

শেরেবাংলা এ কে ফজলুল হকের জন্ম ১৮৭৩ সালের ২৬ অক্টোবর ঝালকাঠি জেলার রাজাপুর উপজেলার সাতুরিয়া গ্রামে। দিবসটি উপলক্ষে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক দল ও সংগঠন বিস্তারিত কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে- পবিত্র কোরআনখানি, কবরে শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন, ফাতিহা পাঠ, আলোচনা সভা, দোয়া ও মিলাদ মাহফিল।

বাংলাটিভি/প্রিন্স

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close