অন্যান্যদুর্ঘটনাদেশবাংলাবাংলাদেশ

রাজধানীর উত্তরখানে বাসা থেকে মরদেহ উদ্ধার

রাজধানীর উত্তরখানের ময়নারটেক এলাকার একটি বাসা থেকে মা ও তার দুই সন্তানের (ছেলে ও মেয়ে) মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

রোববার রাতে স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, চলতি মাসের শুরুতে উত্তরখানের ময়নারটেক মহল্লার একতলার ভাড়া বাড়িটিতে ওঠেন জাহানারা বেগম ও তার ছেলে মহিব হাসান ও মেয়ে আতিয়া সুলতানা মিম।

অন্যদিকে উত্তরা জোনের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার হাফিজুর বলেন, স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে দেড় মাস আগে পরিবারটি এই বাসা ভাড়া নিয়েছিল। কয়েকদিন ধরে বাসাটির দরজা জানালা সব ভেতর থেকে বন্ধ ছিল। পরে স্থানীয়রা সন্দেহের বশে বিষয়টি জানালে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দরজা ভেঙে ঘরের ভেতর থেকে তিনটি মরদেহ উদ্ধার করে।

উত্তরা জোন ডিসি নাভিদ কামাল শৈবাল জানান, ‘ভেতরে তিনজনের মরদেহ পাওয়া যায়। একটি চিরকুট পাওয়া গেছে জাহানারা বেগমের নামে সাক্ষর করা এবং নিচে তাঁর নাম লিখা। সেখানে লিখা আছে যে আত্মীয়স্বজনের অসহযোগিতা এবং তাদের প্রতি অবহেলাই হলো তাদের মৃত্যুর কারণ। আমরা এখনও মোটিভ বুঝতে পারিনি,এটা তদন্ত সাপেক্ষ। আমরা পরবর্তিতে আরও তদন্ত করবো।

রবিবার ইফতারের পর প্রতিবেশীরা ওই বাসা থেকে দুর্গন্ধ পেয়ে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ গিয়ে বাসার দরজা ভেতর থেকে বন্ধ পায়। পরে দরজা ভেঙে বাসার ভেতরে ঢোকে পুলিশ। শয়নকক্ষের মেঝেতে ছেলে মহিব হাসানের মরদেহ এবং বিছানায় মা জাহানারা বেগম ও মেয়ে আফিয়া সুলতানা মিমের মরদেহ পড়ে ছিল। পুলিশের প্রাথমিক ধারণা, তিন-চার দিন আগেই মৃত্যু হয়েছে তাদের।

তবে এটি হত্যাকাণ্ড নাকি আত্মহত্যা সে ব্যাপারে এখনো নিশ্চিত নয় পুলিশ। তদন্তের পরই এ ঘটনার বিস্তারিত জানা যাবে। এখন পর্যন্ত আলামত হিসেবে জাহানারা বেগমের একটি চিরকুট পাওয়া গেছে। মরদেহ দেখে ধারণা করা হচ্ছে ঘটনাটি দুই আগে ঘটতে পারে।

বাংলাটিভি/ফাতেমা

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close