অন্যান্যবাংলাদেশ

১০৩ টাকায় পুলিশে চাকরী দিলেন এসপি মাহবুবুর

পুলিশ নিয়োগে  স্বচ্ছতার মাধ্যমে  চুয়াডাঙ্গা জেলার দরিদ্র ও দিন মজুর পরিবারের সন্তানদের  চাকুরী দিলেন গরীবের এসপি মাহবুবুর রহমান পিপিএম (বার)। ইতোমধ্যেই তিনি ১০৩ টাকায় চাকরী দিয়ে জেলার সকল মানুষের আস্থা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছেন। এজন্য চুয়াডাঙ্গা জেলাবাসী তার কাছে চির কৃতজ্ঞ। চুয়াডাঙ্গা জেলার ইতিহাসে এই প্রথম ঘুষ বিহীন পুলিশ সদস্য নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

   বর্তমানে টাকা  ছাড়া পুলিশের চাকরি পাওয়া যায় এমন কথা হয়ত কেউ বিশ্বাস না করলেও এমনই অকল্পনীয় কাজই করে দেখিয়েছেন চুয়াডাঙ্গার পুলিশ সুপার মাহবুবুর রাহমান।

১০ হাজার চাকরি প্রত্যাশীর মধ্যে ৪৬ জন নারী পুরুষকে মাত্র ১০০ টাকায় পুলিশের চাকরি দিয়ে ইতিমধ্যে জেলায় রীতিমতো দৃষ্টান্তই স্থাপন করেছেন পুলিশ সুপার মাহবুবুর রহমান।

বুধবার বিকেলে জেলা পুলিশ লাইনে পুলিশ কনস্টেবল পদের ফলাফল ঘোষনা করা হয়। পুলিশের চাকরি পাওয়া ৪৬ জনের মধ্যে ২৩ জন পুরুষ ও ২৩ জন নারী।

ফলাফল ঘোষনার সময় উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা পুলিশ সুপার মাহবুবুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুল বাশার সহ পুলিশের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা।

পুলিশ সুপার মাহবুবুর রহমান বলেন যারা চাকরি পেয়েছেন তারা নিজেদের মেধায় চাকরি পেয়েছেন। এসময় পুলিশ সুপার আবেগ আপ্লুত হয়ে পড়েন।

কান্নাজড়িত কন্ঠে পুলিশ সুপার মাহবুবুর রহমান বলেন টাকার চেয়ে স্বচ্ছ কাজের মাধ্যমে দরিদ্র মানুষের হাসির মূল্য আমার কাছে অনেক বড়। তাই নিয়োগের ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা নিশ্চিত করা হয়েছে।

চাকরিতে কারো সাথে কোন প্রকার অর্থ বাণিজ্যের লেনদেন করা হয়নি সুতরাং যারা পুলিশের চাকরি পাচ্ছেন তারা তাদের দায়িত্ব সততার সাথে পালন করবেন এটাই প্রত্যাশা করি।

এর আগে গত একমাস আগে জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করে  মাত্র ১০০ টাকায় পুলিশের চাকরি দিতে চেয়েছিলেন চুয়াডাঙ্গার পুলিশ সুপার মাহবুবুর রহমান।

সে সময় তিনি বলেছিলেন সম্পূর্ণ যোগ্যতার ভিত্তিতে এবারের পুলিশে চাকরি হবে। সম্পূর্ণ স্বচ্ছ প্রক্রিয়ায় পুলিশ সদস্য নিয়োগ দেয়া হবে।

স্বচ্ছ প্রক্রিয়া আর অর্থ বানিজ্যে ছাড়া পুলিশ কনস্টেবল পদে ৪৬ জনকে চাকরি দেওয়ায় জেলার সুশীল সমাজ সহ সাধারণ মানুষের কাছে প্রশংসায় ভাসছেন এসপি মাহবুবুর রহমান।

বাংলা টিভি/মামুন মোল্লা, চুয়াডাঙ্গা

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close