অন্যান্যবাংলাদেশ

ঠিকাদারদের আইডল হতে পারেন আবু তৈয়ব

দুর্নীতি, টেন্ডার, চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন বিতর্কিত কর্মকাণ্ডের জন্য ছাত্রলীগ যখন দেশজুড়ে সমালোচনার মধ্যে চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সদ্য সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবু তৈয়ব দেশের এই নৈতিক অবক্ষয়ের মধ্যে স্থাপন করলেন এক অনন্য দৃষ্টান্ত। বরাদ্দকৃত অর্থের চেয়ে কম টাকায় একটি সরকারি প্রকল্পের কাজ শেষ করেছেন তিনি।

আবু তৈয়ব পেশায় একজন ঠিকাদার। এমনকি বেঁচে যাওয়া ৪ কোটি ৪৪ লাখ টাকা সরকারি কোষাগারে জমাও দিয়েছেন তিনি।

সাধারণত সরকারি প্রকল্পে ব্যয় বাড়নোর প্রবণতা লক্ষ করা যায় ঠিকাদারদের মধ্যে। ঠিকাদার কিংবা তাদের প্রতিষ্ঠানের লোকজন কাজ কম করে টাকা নেওয়ার কথাও এর আগে গণমাধ্যমে প্রকাশ পেয়েছে।

কিন্তু টাকা বাঁচিয়ে ফেরত দেওয়ার এমন ঘটনা বর্তমান সময়ে বিরল। তাই আবু তৈয়বের এই দৃষ্টান্তকে প্রশংসনীয় বলে উল্লেখ করে অনেকেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মন্তব্য প্রকাশ করেছেন।

৮ অক্টোবর সেই প্রকল্পের উদ্বোধনকালে সাবেক গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘সব ঠিকাদাররা খারাপ না। ভালো ঠিকাদারও রয়েছে গণপূর্তে। এর প্রমাণ হলো আবু তৈয়ব।’

আবু তৈয়ব এ প্রসঙ্গে বলেন, এখানে সব কৃতিত্ব প্রকল্পের সঙ্গে সঙ্গে সংশ্লিষ্ট পিডাব্লিউডি কর্মকর্তাদের। এছাড়া সব ঠিকাদারদেরই উচিৎ ট্যাক্সদাতাদের অর্থ নষ্ট না করা এবং সময়সীমার মধ্যে প্রকল্পের কাজ শেষ করা

প্রসঙ্গত, গণপূর্ত বিভাগের আওতাধীন চট্টগ্রাম নগরীতে ‘বায়েজিদ সবুজ উদ্যান’ নামে একটি পার্ক নির্মাণ প্রকল্পে বরাদ্দ ছিল ১২ কোটি ৭৪ লাখ টাকা। তিনি ৮ কোটি ৩০ লাখ টাকায় কাজ শেষ করে এবং বাকি ৪ কোটি ৪৪ লাখ টাকা গণপূর্ত বিভাগকে বুঝিয়ে দেন। ২০১৭ সালের এপ্রিলে কাজটি পায় আবু তৈয়বের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান।

 সৌরভ নূর /বাংলা টিভি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close