দেশবাংলা

লক্ষ্মীপুরে চুরির অপবাদে কিশোরকে পিটিয়ে নির্যাতন

লক্ষ্মীপুরে চুরির অপবাদ দিয়ে বিদ্যুতের খুঁটির সঙ্গে বেঁধে নিরব হোসেন নামে এক কিশোরকে পিটিয়ে ও জুতার মালা গলায় পড়িয়ে নির্যাতন করা হয়েছে। শ্রমের টাকা না দিয়ে, তাকে নির্যাতন করা হয়েছে বলে অভিযোগ, স্বজনদের। এ ঘটনায় ভুক্তভোগীর নানী বাদী হয়ে সদর থানায় মামলা করেছেন।

লক্ষ্মীপুর পৌর শহরের ২ নম্বর ওয়ার্ডের নিরব হোসেন। গত শনিবার দোকান থেকে টাকা চুরির অপবাদ দিয়ে, বিদ্যুতের খুঁটির সঙ্গে বেঁধে মারধর, গলায় ঝাড়ু ও জুতার মালা পড়িয়ে নির্যাতন করা হয়েছে। এরপর তাকে থানা পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

নিরবকে থানা থেকে ছাড়িয়ে এনে দোকান মালিক শালিশী বৈঠকের আয়োজন করেন। এতে স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলরসহ মাতব্বররা ওই কিশোরকে দোষী সাব্যস্ত করে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করে। জরিমানার টাকা না থাকায় নিরবের দায়িত্ব নিতে রাজি হননি, তার নানা ও নানী।

এতেই হট্টগোল শুরু হয়ে আবারো মারধর করা হয় তাকে। রোববার স্থানীয়রা তাকে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। পরদিন ভুক্তভোগীর নানী আলেয়া বেগম থানায় অভিযোগ করেন। তবে কাউন্সিলর শিপন ও সালিশদার ইসমাইল ঝাড়ু ও জুতার মালা পরিয়ে দেয়ার ঘটনা সম্পর্কে অবহিত নন বলে দায় এড়িয়ে যায়।

লক্ষ্মীপুর সদর থানার ওসি (তদন্ত) মোহাম্মদ মোসলেহ উদ্দিন বলছে, অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত চলছে। ৬মাস ধরে স্থানীয় রাশেদের চামড়ার দোকানে কাজ করতো মৃত কিরন হোসেনের ছেলে নিরব হোসেন।

জামাল উদ্দিন, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button