ক্রিকেটখেলাধুলা

ইতিহাস গড়লো বাংলাদেশ যুব দল

ইতিহাস গড়লো বাংলাদেশ যুব দল। প্রথমবারের মতো অনুর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের শিরোপা জিতলো তারা। চারবারের চ্যাম্পিয়ন ভারতকে ৩ উইকেটে হারিয়ে বিশ্বকে দেখিয়ে দিলো এখনো বিশ্বক্রিকেটে লাল-সবুজদের দাপট। আগামী দুই বছর বিশ্ব ক্রিকেটকে নিয়ন্ত্রণ করবে আকবর আলির দল।

 যুব টাইগারদের এই সাফল্যে অভিনন্দন জানিয়েছেন, রাস্ট্রপতি অ্যাডভোকেট আব্দুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এরচেয়ে আনন্দের আর কি হতে পারে? বিশ্ব ক্রিকেটের নতুন চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ। যে দলকে নানাভাবে কূটক্তি করেছিল স্বংয় আইসিসি তাদেরই বৈশ্বিক টুর্নামেন্টে নতুন চ্যাম্পিয়নের নাম ঘোষণা করলো ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থাই।

বল হাতে দূর্দান্ত বাংলাদেশ, ব্যাটিং এর শুরুতেও ভালো ছিল। উদ্বোধনী জুটিই করে ৫০ রান। এরপরই লেগ স্পিনার রাবি বিশ্বনাইয়ের স্পিন ভেলকিতে কুপোকাত তামজিদ-মাহমুদুল-তৌহিদরা। তাতেই জয়ের আশাটা ক্ষীণ হয়ে যায় লাল-সবুজদের। মাঝে যোগ হয় ওপেনার পারভেজ ইমনের ইনজুরি। ফলে কিছুটা সময় ছিলেন ক্রিজের বাইরে। তখন তার রান ২৫।

১০২ রানে ৬ উইকেট হারাবার পর দলের বিপর্যয়ে কান্ডারীর ভূমিকায় আবারো ইমন।  যোগ করে আরো ২২ রান।  কিন্তু তার আচমকা বিদায়ে আবারো লন্ডভন্ড হয়ে যায় টাইগার শিবির।

ম্যাচের শুরুটা ছিলো বাংলাদেশের মনমতো।  চারবারের যুব চ্যাম্পিয়নদের ১৭৭ রানে ‍গুটিয়ে দিয়ে প্রত্যাশার পারদটাও বাড়িয়ে দেয় বহুগুণ।  যার পুরো কৃতিত্বটাই বোলার অভিষেক দাসের।  কামব্যাক করার ম্যাচে ম্যিতব্যয়ী বল করে নেন তিন উইকেট। দুইটি করে নেন শরিফুল ইসলাম এবং তানজিম সাকিব।

পাশাপাশি ছিলো দূর্দান্ত ফিল্ডিং। জাতীয় দল যেখানে ক্যাচ ফেলে দেয়ার মহড়ায় ব্যস্ত, সেখানে যুব টাইগাররা অবাক করে দেন ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের একের পর এক ক্যাচ আর বল আটকিয়ে। তাতেই ম্যাচের ব্যবধান গড়ে দেয় লাল-সবুজের ভবিষ্যত কান্ডারীরা।

 মোহাম্মদ হাসিব, বাংলাটিভি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close