দেশবাংলা

৭ মাস ধরে মসজিদে তালা

মানিকগঞ্জের হরিরামপুর উপজেলার আদাশরি জামে মসজিদে প্রায় ৭ মাস ধরে তালা ঝুলছে। ঐ গ্রামের একটি প্রভাবশালী মহল গেল বছরের ঈদুল আযহার একদিন আগে মসজিদে তালা দিয়ে সকল কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়। ঈদের নামাজ মসজিদ কিংবা মাঠে আদায় করলে, মুসুল্লিদের মেরে ফেলার হুমকি দেয় তারা।

পরে মসজিদের চাবি চাইতে গেলে একাধিক ব্যক্তিকে কুঁপিয়ে জখম করে তারা। ফলে, ৭ মাস ধরে মসজিদে নামাজ আদায় করতে পারছেন না ধর্মপ্রাণ মুসুল্লীরা।

মানিকগঞ্জের হরিরামপুর উপজেলার বলড়া ইউনিয়নের আদাশরি গ্রামের একমাত্র জামে মসজিদটি ২৫ বছর ধরে পরিচালিত হয়ে আসছে। ২০১৯ সালের ১১ আগষ্ট হঠাৎ করে মসজিদে তালা দিয়ে বন্ধ করে দেন, ঐ গ্রামের নুরুল  হক বাহিনী।

দীর্ঘ ৭ মাস ধরে মসজিদটিতে তালা মেরে সকল কাযক্রম জোরপূর্বক বন্ধ রেখেছে। কেউ মসজিদের চাবি চাইতে গেলে তাদের ওপর নেমে আসে অত্যাচার। মসজিদ আঙ্গিনায় পা দিলে তাদের মেরে লাশ গুম করে ফেলার হুমকি দেয়ায়, কোন মুসল্লি নামাজ আদায় করতে পারছেন না।

ফলে ঐ গ্রামের ৪২টি পরিবার জামাতে নামাজ আদায় করতে না পেরে, হরিরামপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। এদিকে, দ্রুত আদাশরী জামে মসজিদটি প্রশাসনের সহায়তায় খুলে দেয়ার দাবী জানান মসজিদ কমিটির সভাপতি মো.নুরুল  আমিন। তবে অভিযোগ অস্বীকার করেন অভিযুক্ত নুরুল হক।

লিখিত অভিযোগ প্রাপ্তি শিকার করে আইনি ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানান, হরিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত অফিসার ইনচার্জ মুঈদ চৌধুরী।

আল্লাহর ঘর মসজিদে যারা তালা মেরে নামাজ আদায় বন্ধ রেখেছেন,তাদের দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনাসহ, তালাবদ্ধ মসজিদটি খুলে দিতে প্রশাসনের কাছে দাবী জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

অহিদুর রহমান, মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close