দেশবাংলা

রেলসেতুতে লোহার বদলে বাঁশ

গাজীপুরে বিভিন্ন রেলসেতুর বেহাল দশা। নাটবল্টু ঢিলা হয়ে ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। অন্যদিকে রেল লাইনে নেই পর্যাপ্ত পাথর। আবার এসব রেলসেতুর সংস্কারে লোহার বদলে ব্যবহার করা হয়েছে বাঁশ। রাজধানীর সঙ্গে উত্তরবঙ্গের যোগাযোগের অন্যতম এসব রেল সড়কে, চরম ঝুঁকি নিয়ে প্রতিনিয়ত চলাচল করছে ট্রেন। দূর্ঘটনা এড়াতে দ্রুত সমস্যার সমাধান চান এলাকাবাসী।

গাজীপুর অঞ্চলে শতবর্ষের পুরনো কয়েকটি রেলসেতুতে লোহার বদলে বাঁশ দিয়ে লাইন আটকে রাখা, নাট বল্টুর বদলে কাঠের পেরেক ব্যব্হার করা হয়েছে। এছাড়া পাটাতনের কাঠ ক্ষয়ে গেছে এবং স্লিপারও ভাঙ্গা। সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে রয়েছে ঢাকা-ময়মনসিংহ রেলসড়কের কাওরাইদ ও গুলাঘাট দুটি রেলসেতু।

৭১ ও ১০১ মিটার দীর্ঘ এ সেতু দুটি নির্মিত হয় ব্রিটিশ আমলে। বর্তমানে সেতু দুটির অবস্থা এতই জরাজীর্ণ যে, সম্প্রতি ঘনঘন রেল দুর্ঘটনা ঘটায় স্থানীয়দের মাঝে দেখা দিয়েছে উদ্বেগ। এদিকে, সাতখামাইর ও কাওরাইদ রেল স্টেশনের রেলগেট দীর্ঘদিন অরক্ষিত থাকা স্বত্তেও প্রতিনিয়ত চলছে বিভিন্ন রকমের যানবাহন।

দিনে দিনে রেলের সব লোহা উধাও হয়ে যাচ্ছে। এছাড়া রেলে কর্মরত মিস্ত্রি এবং কিউমিনদের বিরুদ্ধে রেল সড়কের ডপপিন, ক্লিপ, জয়েন বল্টু, স্টিল সিলভারসহ,সকল ধরনের লোহা চুরি করে বিক্রীর অভিযোগও রয়েছে। রেলের এরকম বিভিন্ন সমস্যা তুলে ধরেন, শ্রীপুর স্টেশনের গেটম্যান ইয়ামিস আহমেদ।

এদিকে স্থানীয় স্টেশন মাস্টার মো.শাহ্জাহান জানান, বিভিন্ন সমস্যা ও অভিযোগের ভিত্তিতে রেল কর্তৃপক্ষ বিভিন্ন উদ্যোগ নিয়েছে। দ্রুত লাইনগুলো সংস্কার করা না হলে, যেকোন সময় ভয়াবহ দুর্ঘটনার আশঙ্কা স্থানীয়দের।

সৌরভ সিকদার, গাজীপুর প্রতিনিধি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close